সুরাট থেকে ২০০ মাইল দূরেই রয়েছে ওসামার দেহ, দাবি মার্কিন নাগরিকের

Last Updated: Friday, May 4, 2012 - 11:28

প্রায় ১০ বছর ধরে ওসামা বিনা লাদেনের খোঁজে তোলপাড় করেছেন মার্কিন গোয়েন্দারা। তাদের সেই খোঁজ শেষ হয়েছিল ২০১১-র ২ মে-র গভীর রাতে। পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে মার্কিন নেভি সিলের গোপন অভিযানে নিহত হয়েছিলেন ওসামা বিন লাদেন। দুঃসাহসী অভিযানের পর কিন্তু চরম সতর্কতা নিয়েছিল আমেরিকা। মার্কিন যুদ্ধজাহাজ থেকে অতি গোপনে সমুদ্রের গভীরে ওসামার দেহ ডুবিয়ে দেওয়া হয়েছিল। মার্কিন গোয়েন্দাদের আশা ছিল, সমুদ্রের গভীরে আল কায়দা সুপ্রিমোর দেহের খোঁজ পাবে না তাঁর কট্টরপন্থী সমর্থকেরা। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেই আশায় বাধ সেধেছেন আরেক মার্কিন নাগরিক। নাম বিল ওয়ারেন। তাঁর শখ- সমুদ্রের অতলে গুপ্তধনের সন্ধান করা।

আর এই নেশার জেরেই লাদেনের দেহের খোঁজও তিনি পেয়ে গেছেন বলে দাবি ওয়ারেনের। মার্কিন নৌবাহিনী লাদেনের দেহ সমুদ্রে ফেলে দেওয়ার ছবি প্রকাশ করেছিল। সেই ছবি থেকেই নাকি লাদেনের দেহের হদিশ পেয়েছেন বিল ওয়ারেন। স্পেনের সংবাদপত্র এল মুন্ডোতে এক সাক্ষাতকারে তাঁর দাবি, ভারতের সুরাট থেকে ২০০ মাইল দূরে সমুদ্রের গভীরে সমাহিত করা হয়েছে লাদেনকে। এব্যাপারে নিশ্চিত হওয়ার পর আর দ্বিধা করেননি ওয়ারেন। লাদেনের দেহের সন্ধানে অভিযানও শুরু করে দিয়েছেন। ওয়ারেনের বক্তব্য, ওসামাকে খতম করলেও, তার নির্দিষ্ট প্রমাণ দিতে ব্যর্থ হয়েছে ওবামা প্রশাসন। তাই সমুদ্রের গভীরে লাদেনের দেহ খুঁজে বের করে তার ছবি তুলতে চান ওয়ারেন। ছবি এবং ভিডিও তুলে, ডিএনএ-র নমুনা সংগ্রহ করে ফিরে আসবেন তিনি।
লাদেনের দেহ তুলে আনার কোনও পরিকল্পনা তাঁর নেই। কিন্তু এই অভিযানের সাফল্য নিয়ে নিজেই সংশয়ে এই অভিযাত্রী। কারণ লাদেনের মৃতদেহ নিয়ে চূড়ান্ত গোপনীয়তা বজায় রাখতে বরাবর সক্রিয় মার্কিন প্রশাসন। তাই বিল ওয়ারেনের আশঙ্কা, লাদেনের দেহের সন্ধানে তাঁর এই অভিযান ভেস্তে দিতে সর্বশক্তি নিয়োগ করবে আমেরিকা।
 



First Published: Friday, May 4, 2012 - 11:28


comments powered by Disqus