ফোর্বস তালিকায় সোনিয়া, মনমোহন, শীর্ষে ওবামা

`ফোর্বস`এর ক্ষমতাশালীদের তালিকায় প্রথম ২০ জনে জায়গা করে নিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। তবে এই নিয়ে পরপর দু`বছর শীর্ষস্থানে রইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ব্যারাক ওবামাই। তালিকায় আছেন রিলায়েন্সে ইন্ডাস্ট্রির প্রধান মুকেশ আম্বানি এবং আরসেলর মিত্তলের সিইও লক্ষ্মী মিত্তল।

Updated: Dec 6, 2012, 11:26 PM IST

`ফোর্বস`এর ক্ষমতাশালীদের তালিকায় প্রথম ২০ জনে জায়গা করে নিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং এবং কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। তবে এই নিয়ে পরপর দু`বছর শীর্ষস্থানে রইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ব্যারাক ওবামাই। তালিকায় আছেন রিলায়েন্সে ইন্ডাস্ট্রির প্রধান মুকেশ আম্বানি এবং আরসেলর মিত্তলের সিইও লক্ষ্মী মিত্তল।
গতবারের থেকে এক ধাপ নামলেও এবছর দ্বাদশ স্থানে রয়েছেন সোনিয়া গান্ধী। চিনের নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট লি কেকিয়াং এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলান্দের আগেই জায়গা পাকা করে নিয়েছেন। খুব তাড়াতাড়ি সোনিয়া-তনয়ও যে তালিকাতে স্থান পাবে তারও ইঙ্গিত দিয়েছে ফোর্বস।
বিশতম স্থানে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। গতবছর ১৯তম স্থানে ছিলেন তিনি।
সাঁইত্রিশতম স্থানে রয়েছেন মুকেশ আম্বানি। গোল্ডম্যান সাক্সের প্রাক্তন আধিকারিক রজত গুপ্তর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার নেতিবাচক প্রভাব পরেছে জানা গিয়েছে। সাতচল্লিশতম স্থানে রয়েছেন লক্ষ্মী মিত্তল।
তবে সর্বসম্মতিক্রমেই গৃহীত হয়েছে প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রথম স্থান। গত বছরের চতুর্থস্থান থেকে দ্বিতীয়স্থানে উঠে এসেছেন জার্মানি চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মার্কেল। এছাড়াও এই তালিকায় স্থান পাওয়া উল্লেখযোগ্যরা হলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন (৩), মাইক্রোসফটের প্রধান বিল গেইটস (৪), নবনির্বাচিত চিনের কম্যুনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক শি জিংপিন (৯), গুগলের প্রধান ল্যারি পেজ ও সের্গেই ব্রিন (২০), ইরানের সুপ্রিমো আলি খমেইনি (২১), রাষ্ট্রসংঘের প্রধান বান-কি-মুন (৩০), উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন (৪৪) এবং প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন (৫০)।