ঘরের মাটিতে আর কখনও ভোটে লড়তে পারবেন না মুশারফ

ঘরের মাটিতে আজীবন কোনও নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না পারভেজ মুশাররফ। এই মর্মে মঙ্গলবার পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পেশোয়ার হাইকোর্ট। তাঁর মনোনয়ন পত্রকে বাতিল করাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মামলা করেছিলেন মুশারফ। পেশোয়ার হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি দোস্ত মহম্মদ খানের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ সেই মামলার শুনানির রায় দিতে গিয়ে প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে সংবিধান অবমাননার অভিযোগে এই নির্দেশ দেন।

Updated: May 1, 2013, 10:40 AM IST

ঘরের মাটিতে আজীবন কোনও নির্বাচনে প্রার্থী হতে পারবেন না পারভেজ মুশাররফ। এই মর্মে মঙ্গলবার পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পেশোয়ার হাইকোর্ট। তাঁর মনোনয়ন পত্রকে বাতিল করাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মামলা করেছিলেন মুশারফ।
পেশোয়ার হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি দোস্ত মহম্মদ খানের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ সেই মামলার শুনানির রায় দিতে গিয়ে প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে  সংবিধান অবমাননার অভিযোগে এই নির্দেশ দেন।
২০০৭ সালে দেশে জরুরী অবস্থার সময় বরখাস্ত হওয়া বিচারপতিদের পুনর্বহাল করেন পারভেজ মুশাররফ। যা সংবিধান বিরুদ্ধ। ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, একবার নয়। দু-দুবার সংবিধানকে উপেক্ষা করেন জেনারেল মুশাররফ। সেই কারণেই তাঁকে আজীবন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করা থেকে বঞ্চিত করল আদালত।

গতকাল অন্য একটি মামলায় প্রাক্তন পাক প্রেসিডেন্টের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের মেয়দ বাড়ল চোদ্দো দিন। প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো হত্যা মামলার ঘটনায় এই নির্দেশ সন্ত্রাসদমন আদালতের। ফলে নির্বাচনের দিন অর্থাত্‍ এগারোই মে তাঁকে গৃহবন্দিই থাকতে হবে নিজের চক শাহজাদের খামার বাড়িতে।