অমুসলিম নিরাপত্তারক্ষী চাই, দাবি পাকিস্তানের মন্ত্রীর

নিরাপত্তার দায়িত্বে চাই অমুসলিম নিরাপত্তা আধিকারিক। সম্প্রতি এমন অবাক করা দাবি করেছেন পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের আইনমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ। মন্ত্রীমশাইয়ের দাবি, তাঁকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়েছে ইসলামি চরমপন্থীরা। তাই মুসলিম নিরাপত্তা আধিকারিকদের বলয়ে নিজেকে সুরক্ষিত মনে করছেন না তিনি। সানাউল্লার দাবি এখনো মানেনি সরকার। 

Updated: Nov 14, 2017, 01:30 PM IST
অমুসলিম নিরাপত্তারক্ষী চাই, দাবি পাকিস্তানের মন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: নিরাপত্তার দায়িত্বে চাই অমুসলিম নিরাপত্তা আধিকারিক। সম্প্রতি এমন অবাক করা দাবি করেছেন পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের আইনমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ। মন্ত্রীমশাইয়ের দাবি, তাঁকে প্রাণে মারার হুমকি দিয়েছে ইসলামি চরমপন্থীরা। তাই মুসলিম নিরাপত্তা আধিকারিকদের বলয়ে নিজেকে সুরক্ষিত মনে করছেন না তিনি। সানাউল্লার দাবি এখনো মানেনি সরকার। 

বেশ কয়েকদিন ধরে সানাউল্লাকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে ইসলামি চরমপন্থী সংগঠন। এর পরই নিজের নিরাপত্তায় অমুসলিম আধিকারিক নিয়োগের দাবি জানান তিনি। যদিও তাঁর দাবি এখনো মানেনি স্থানীয় প্রশাসন। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে সানাউল্লার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তারক্ষীদের ইতিহাস খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

আরও পড়ুন - রসগোল্লা বাংলারই, ওড়িশাকে হারিয়ে সত্ত্ব পেল পশ্চিমবঙ্গ

সানাউল্লার দাবি, তাঁকে হিন্দু, খ্রীষ্টান, আহমদি পুলিস আধিকারিকদের তালিকা দিতে হবে পুলিস সুপারকে। পুলিশ তাঁকে পছন্দসই নিরাপত্তারক্ষী না দেওয়ায় বেসরকারি নিরাপত্তা সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তিনি।

সপ্তাহ কয়েক আগে এক টিভি সাক্ষাত্কারে সানাউল্লাহ দাবি করেন, মুসলিম ও আহমদিদের মধ্যে ফারাক আছে। এতেই ক্ষেপে ওঠে পাকিস্তানের চরমপন্থী মুসলিমরা। বলে রাখি, রক্ষণশীল ইসলামের বিরোধিতা করেন সংশোধনবাদী আহমদিরা।