শান্তি আলোচনা মানেই `জিহাদ` শেষ নয় : তালিবান

শান্তি আলোচনার আবহেই ফের `জিহাদ`-এর বার্তা তালিবান সেনার।

Updated: Jan 12, 2012, 03:57 PM IST

শান্তি আলোচনার আবহেই ফের `জিহাদ`-এর বার্তা তালিবান সেনার। আফগানিস্তানে যুদ্ধ শেষ করে শান্তি আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছে তালিবানের রাজনৈতিক শাখা। কিন্তু বৃহস্পতিবার তালিবানের তরফে জানানো হয়েছে, শান্তি আলোচনা মানেই যুদ্ধে ইতি টানা নয়। সশস্ত্র লড়াই জারি থাকবে। তালিবান মুখপাত্র জাবিউল্লা মুজাহিদের বক্তব্য, আফগানিস্তানে ইসলাম সরকার কায়েমের জন্য মানুষের ইচ্ছায় গত ১৫ বছর ধরে লড়াই করছে তালিবানরা। আফগানিস্তানে রাজনৈতিক স্থিতাবস্থা ও শান্তি স্থাপনের উদ্দেশ্যেই বিশ্বের সঙ্গে পারস্পরিক সমঝোতা করতে রাজনৈতিক প্রচেষ্টা বাড়িয়েছে তালিবান। কিন্তু এই সমঝোতা মানেই জিহাদ ছেড়ে কাবুল প্রশাসনের সংবিধানকে মেনে নেওয়া নয়।
কাতারে মার্কিন সরকারের সঙ্গে তালিবানদের শান্তি আলোচনা হওয়ার সম্ভাবনার কথা বেশ কিছু দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে। তালিবানদের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় বসার ইঙ্গিত দিয়েছে মার্কিন প্রশাসনও। বুধবার মার্কিন বিদেশ সচিব হিলারি ক্লিন্টন জানান, আফগানিস্তানে গত এক ধরে চলা যুদ্ধের অবসানে তালিবান সেনার সঙ্গে শান্তি প্রক্রিয়া শুরু করার চেষ্টা করছে আমেরিকা। গুয়ান্তেনামো থেকে কয়েকজন তালিবানি যুদ্ধবন্দীকে মুক্তও করেছে ওয়াশিংটন। হামিদ কারজাই সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনার জন্য তালিবানরা একটি অফিস খুলতে চেয়েছিল কাতারে। সেই অফিস খোলার ব্যাপারেও ইতিবাচক ইঙ্গিত দিয়েছেন ক্লিন্টন। তবে সদ্য প্রকাশিত তালিবান সেনাদের মৃতদেহের উপর ৪ মার্কিন সেনার প্রস্রাবের ভিডিও, শান্তি আলোচনায় প্রভাব ফেলতে পারে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।