পাক সাধারণ নির্বাচনে আন্তর্জাতিক জঙ্গি হাফিজ সইদের সঙ্গে জোটের ডাক মুশারফের

গৃহবন্দি অবস্থা থেকে ছাড়া পেয়েই পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে লড়ার কথা ঘোষণা করেছে জামাত-উদ-দাওয়া নেতা হাফিজ সইদ। এই পরিস্থিতিতে একটি পাক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাতকারে মুশারফ জানিয়েছেন, ‘হাফিজ ‌আমাদের জোটে ‌যোগ দিতে চাইলে তাঁকে স্বাগত জানাচ্ছি’

Updated: Dec 4, 2017, 03:10 PM IST
পাক সাধারণ নির্বাচনে আন্তর্জাতিক জঙ্গি হাফিজ সইদের সঙ্গে জোটের ডাক মুশারফের

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাক স্বৈরশাসক পারভেজ মুশারফকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি হিসেবে ঘোষণার দাবি জানালেন বালোচ নেত্রী নায়েল কাদরি বালোচ। এই দাবিতে মার্কিন স্বরাষ্ট্র সচিবকে চিঠি পাঠিয়েছেন তিনি। এর মধ্যেই আন্তর্জাতিক জঙ্গি হাফিজ সইদের রাজনৈতিক দল মিল্লি মুসলিম লিগের সঙ্গে নির্বাচনী জোটের ইচ্ছা প্রকাশ করলেন মুশারফ।

সম্প্রতি গৃহবন্দি অবস্থা থেকে ছাড়া পেয়েই পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে লড়ার কথা ঘোষণা করেছে জামাত-উদ-দাওয়া নেতা হাফিজ সইদ। এই পরিস্থিতিতে একটি পাক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাতকারে মুশারফ জানিয়েছেন, ‘হাফিজ ‌আমাদের জোটে ‌যোগ দিতে চাইলে তাঁকে স্বাগত জানাচ্ছি।’
উল্লেখ্য, ২০১৮-য় পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচন হওয়ার কথা। তার আগে গত নভেম্বরে কমপক্ষে ২ ডজন দল নিয়ে একটি মহাজোট তৈরির কথা ঘোষণা করেন মুশারফ। ওই জোটের মধ্যে মুশারফের নিজের দল অল পাকিস্তান মুসলিম লিগ ছাড়াও রয়েছে সুন্নি তেহরিক, মজলিস-ই-ওয়াহাতুল মুসলেমিন, পাকিস্তান আওয়ামি তেহরিক-এর মতো দল। ওই জোটেই সইদের দল মিল্লি মুসলিম লিগকে চাইছেন মুশারফ।
হাফিজ সইদ গৃহবন্দি দশা থেকে ছাড়া পাওয়ার পর জঙ্গি দমনে পাকিস্তানকে একের পর এক হুঁশিয়ারি দিয়ে চলেছে মার্কিন ‌যুক্তরাষ্ট্র। রবিবারও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ প্রধান মন্তব্য করেছেন, জঙ্গি দমনে পাকিস্তান সক্রিয় না হলে তারাই জঙ্গিদের সাফ করে দেবেন।  এই অবস্থায় হাফিজ সইদ শেষ পর্যন্ত ভোটে দাঁড়াতে পারবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই ‌যাচ্ছে। এরপরও সইদকে মহাজোটে চাইছেন মুশারফ।
সম্প্রতি হাফিজ সইদের খুল্লামখুল্লা প্রসংশা করেছিলেন মুশারফ। এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেছিলেন, লস্কর ভালো কাজ করছে। তারা কাশ্মীরে সক্রিয়। তাদের জেহাদি কাজকর্মের প্রতি আমার সমর্থন রয়েছে। পাশাপাশি তিনি সাফ জানিয়েছিলেন তিনি হাফিজ সইদের ফ্যান।
আরও পড়ুন-ভাল কথায় কাজ না হলে পাকিস্তানে জঙ্গিদের সাফ করে দেব আমরাই, বললেন মার্কিন গোয়েন্দাপ্রধান