৫০০ লক্ষ বছর ধরে পৃথিবীর বুকে রাজত্ব করা আরশোলার প্রজাতির খোঁজ মিলল কলোরাডোতে

বিচ্ছেদটা মাত্র ৪৯০ লক্ষ বছরের। গত কয়েক শতক ধরে তাদের অবস্থান ছিল শুধু পাঠ্য বইয়ের পাতায়। ভাবা হয়েছিল পৃথিবীর বুক থেকে তারা বোধহয় চিরতরে মুছে গেছে। কিন্তু সব অনুমান মিথ্যে করে দিয়ে ফের খুঁজে পাওয়া গেল তাদের। এক্টোবিয়াস বর্গের চারটি প্রজাতির আরশোলার ফের খোঁজ পাওয়া গেল। দীর্ঘ ৪৯০ লক্ষ বছর পর। জানা গেল মোটেও কালের গহ্বরে হারিয়ে যায়নি তারা। বরং সবার অলক্ষ্যে নিজেদের মত করে দিব্যি বেঁচে বর্তে ছিল তারা। পূর্বের সব তত্ত্ব খারিজ করে দিল তাদের অস্তিত্ব।

Updated: Jan 9, 2014, 02:02 PM IST

বিচ্ছেদটা মাত্র ৪৯০ লক্ষ বছরের। গত কয়েক শতক ধরে তাদের অবস্থান ছিল শুধু পাঠ্য বইয়ের পাতায়। ভাবা হয়েছিল পৃথিবীর বুক থেকে তারা বোধহয় চিরতরে মুছে গেছে। কিন্তু সব অনুমান মিথ্যে করে দিয়ে ফের খুঁজে পাওয়া গেল তাদের। এক্টোবিয়াস বর্গের চারটি প্রজাতির আরশোলার ফের খোঁজ পাওয়া গেল। দীর্ঘ ৪৯০ লক্ষ বছর পর। জানা গেল মোটেও কালের গহ্বরে হারিয়ে যায়নি তারা। বরং সবার অলক্ষ্যে নিজেদের মত করে দিব্যি বেঁচে বর্তে ছিল তারা। পূর্বের সব তত্ত্ব খারিজ করে দিল তাদের অস্তিত্ব।

৪৯০ লক্ষ বছর আগে পৃথিবীর বুকে সবথেকে বেশি দেখা মিলত এই এক্টোবিয়াস আরশোলার। উত্তর ইউরোপ থেকে আফ্রিকার দক্ষিণ প্রান্ত পর্যন্ত ছিল এদের রাজত্ব।

এক্টোবিয়াসের চারটি প্রাচীন প্রজাতির খোঁজ মিলেছে কোলারাডোর গ্রিন রিভারের কাছে।

আজ থেকে ৬৫ বছর আগে উত্তর আমেরিকার Ectobius kohlsi নামের চারটি প্রজাতির দেখা মিলেছিল। বিজ্ঞানীরা অনুমান করেছিলেন এই আরশোলআই উত্তর আমেরিকায় বসবাসকারী প্রাচীনতম আরশোলার প্রজাতি। যাদের আবির্ভাব আজ থেকে ৪৪০ লক্ষ বছর আগে পৃথিবীতে হয়েছিল। কিন্তু কলোরাডোর আবিষ্কার সেই তত্ত্বকে মিথ্যা প্রমাণ করল।