জেল ফেরত আরাবুল এ বার তোলাবাজ বিতর্কে

কে তোলাবাজ? তা নিয়ে তর্কে মেতেছেন আরাবুল ইসলাম আর কাইজার আহমেদ। দুজনই ভাঙড়ের তৃণমূল নেতা। একে অন্যের দিকে আঙুল তুলছেন দুজনই। কথার লড়াইতেই থেমে না থেকে ভাঙড়ের রাস্তায় বের করে দিলেন মিছিল। আরাবুল আর কাইজার দুজনই। তবে একসঙ্গে নয়, আলাদা আলাদা। 

Updated: Sep 16, 2013, 08:27 PM IST

কে তোলাবাজ? তা নিয়ে তর্কে মেতেছেন আরাবুল ইসলাম আর কাইজার আহমেদ। দুজনই ভাঙড়ের তৃণমূল নেতা। একে অন্যের দিকে আঙুল তুলছেন দুজনই। কথার লড়াইতেই থেমে না থেকে ভাঙড়ের রাস্তায় বের করে দিলেন মিছিল। আরাবুল আর কাইজার দুজনই। তবে একসঙ্গে নয়, আলাদা আলাদা। 
একজন আরাবুল ইসলাম। ভাঙড় দুই পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি। প্রাক্তন বিধায়ক।
 
অপরজন কাইজার আহমেদ। ভাঙড় এক ব্লক তৃণমূলের নেতা। জেলা পরিষদের সদস্য। 
 
সোমবার ভাঙড়ের ঘটকপুকুরে মিছিল করলেন দুজনই। আরাবুলের অভিযোগ, বাসন্তি হাইওয়ের পাশে  খাল লাগোয়া সরকারি জমিতে চলছে বেআইনি দোকান তৈরির পিছনে আছেন কাইজার। কাইজার আবার বলছেন, শোনপুর ব্রিজ সহ নানা জায়গায় বেআইনি নির্মাণের পিছনে আরাবুল। তোলাবাজির নালিশ তো আছেই, সঙ্গে সন্ত্রাসের অভিযোগও। 
 
ঘরের টক্কর বাইরে। আর টক্করের কথা দুজনই জানিয়েছেন দলের টপ বসদের। নেতায় নেতায় টক্করে মিছিল পাল্টা মিছিলে বাসিন্দারা আতঙ্কে। আর পুলিস স্রেফ দর্শক। টক্কর যে হচ্ছে শাসক দলের দুই নেতার। মাঝে ঢুকে বিষ নজরে পড়তে কে-ই বা চায়।