আত্মসমর্পণ করেই জামিন আরাবুলের

আত্মসমর্পণ করলেন ভাঙড় কলেজে অধ্যাপিকা নিগ্রহ কাণ্ডে অভিযুক্ত আরাবুল ইসলাম। যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে আদালত তাঁকে জামিন দেয়। সোমবার দুপুরে বারুইপুর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন আরাবুল।

Updated: Apr 30, 2012, 02:12 PM IST

আত্মসমর্পণ করলেন ভাঙড় কলেজে অধ্যাপিকা নিগ্রহ কাণ্ডে অভিযুক্ত আরাবুল ইসলাম। যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে আদালত তাঁকে জামিন দেয়। সোমবার দুপুরে বারুইপুর আদালতে আত্মসমর্পণ করেন আরাবুল। সঙ্গে আত্মসমর্পণ করেন তাঁর ছেলেও। দোর্দণ্ডপ্রতাপ এই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে পুলিস মোট ৬টি ধারায় মামলা রুজু করেছে। যদিও সবকটি ধারাই জামিনযোগ্য।
তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক এবং দলীয় নেতা আরাবুলের বিরুদ্ধে ভাঙড় কলেজের অধ্যাপিকাকে নিগ্রহের অভিযোগ রয়েছে। অধ্যাপিকা দেবযানী দে গত শুক্রবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার অতিরিক্ত পুলিস সুপারের কাছে আরাবুলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। আরও সাতজন অধ্যাপিকাও অভিযোগ দায়ের করেন আরাবুলের বিরুদ্ধে। অভিযোগ পেয়ে আরাবুল ইসলামের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৬টি ধারায় মামলা রুজু করে পুলিস। যদিও সবক`টি ধারাই জামিন যোগ্য।
ওদিকে নিগ্রহের ঘটনার পর সোমবারই প্রথমবার ভাঙড় কলেজে যান অধ্যাপিকা দেবযানী দে। অশান্তির আশঙ্কায় কলেজে মোতায়েন রয়েছে পুলিস।