অধীর চৌধুরীর নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা, উদ্দেশ্যপ্রণদিত ভাবে ফাঁসানো হয়েছে মুর্শিদাবাদের সাংসদকে, দাবি কংগ্রেসের

Last Updated: Saturday, September 28, 2013 - 09:17

গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হল কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে। ২০১১ বহরমপুরে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী কামাল শেখের খুনের ঘটনায় এই পরোয়ানা জারি করেছে বহরমপুর সিজেএম কোর্ট।
২০১১-এর ১৫ মে বহরমপুরের গোরাবাজার এলাকায় প্রকাশ্য রাস্তায় খুন হন তৃণমূল কংগ্রেসের ওই কর্মী। এই খুনের ঘটনায় পুলিস আট জনকে গ্রেফতার করেছিল। তারা এখন জেলে। গত বুধবার পুলিস এই ঘটনায় একটি সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট পেশ করে বহরমপুর সিজেএম কোর্টে। ওই চার্জশিটে খুন এবং খুনে ষড়যন্ত্রের অভিযোগে অধীর চৌধুরী-সহ আরও এক কংগ্রেস কর্মীর নাম রয়েছে। চার্জশিটে তাঁদের পলাতক দেখানো হয়। এরপরই শুক্রবার বিচারক দুজনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।
অধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে মুর্শিদাবাদ জুড়ে। এর প্রতিবাদে শুক্রবার রাত থেকেই আন্দোলনে নেমেছে জেলা কংগ্রেস। ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে গির্জার মোড় অবরোধ
করেন দলের নেতা-কর্মী-সমর্থকরা। ঘণ্টাখানেক অবরোধ চলে। আজও একাধিক প্রতিবাদ কর্মসূচি রয়েছে কংগ্রেসের। ডাক দেওয়া হয়েছে মহামিছিলের। প্রতিটি ব্লকে মিছিল এবং প্রতিবাদ সভা হবে। ঘোষণা জেলা কংগ্রেস নেতৃত্বের। তাঁদের
অভিযোগ, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে এই মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে অধীর চৌধুরীকে।



First Published: Saturday, September 28, 2013 - 09:17


comments powered by Disqus