দু`দিনের জন্য ডুয়ার্স বন্‌ধ আংশিক প্রত্যাহার, দ্বিতীয় দিনেও অশান্তি

Last Updated: Tuesday, April 24, 2012 - 11:44

লাগাতার ডুয়ার্স বন্‌ধ দু`দিনের জন্য আংশিক প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিল মোর্চা ও বার্লা গোষ্ঠীর যৌথ মঞ্চ। মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দিয়েই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান যৌথমঞ্চের আহ্বায়ক জন বার্লা। তবে মোর্চা ও বার্লা গোষ্ঠীর যৌথ মঞ্চের ডাকা বন্‌ধের দ্বিতীয় দিনেও অশান্ত হল তরাই-ডুয়ার্স।
মঙ্গলবার দুপুরে ওদলাবাড়িতে বন্‌ধ সমর্থকরা একটি গাড়িতে আগুন ধরালে পাল্টা এক মোর্চা সমর্থকের স্কুটারে আগুন ধরিয়ে দেয় বন্‌ধ বিরোধীরা। উত্তেজিত জনতা মোর্চার স্থানীয় একটি দফতরে চড়াও হয়ে ভাঙচুর চালায়। বন্‌ধ সমর্থক এবং বিরোধীদের মধ্যে ইট ছোঁড়াছুড়ি শুরু হয়। জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠি চালায় পুলিস। ওই ঘটনার জেরে পুলিসকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন এলাকার মানুষ। এই পরিস্থিতিতে দুপুরের পরই দুদিনের জন্য বন্‍ধ প্রত্যাহারের ঘোষণা করা হয় যৌথমঞ্চের তরফে। মুখ্যমন্ত্রীর আবেদনে সাড়া দিয়ে ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও সরকার দাবি না মানলে ২৭ তারিখ থেকে ফের বন্‌ধ শুরুর হুমকি দিয়েছেন জন বার্লা।
অন্যদিকে, বানারহাটে দোকানে আগুন লাগানোর প্রতিবাদে এবং জন বার্লাকে গ্রেফতারের দাবিতে থানা ঘেরাও করেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। এই ইস্যুতে এদিন ডুয়ার্সে কালাদিবস পালন করে ব্যবসায়ী সমিতি। তবে ওদলাবাড়িতে সংঘর্ষের ঘটনা ছাড়া সকাল থেকে মোটের উপর স্বাভাবিকই ছিল ডুয়ার্স। একমাত্র হাসিমারা ও কালচিনি ছাড়া অন্য কোথাও বন্‌ধের তেমন প্রভাব নজরে পড়েনি। তবে স্থানীয় রুটে যান চলাচল স্বাভাবিক থাকলেও জাতীয় সড়কে দূরপাল্লার যান চলাচল অনেক সময় ব্যাহত হয়েছে।লালগড়ে এক সভায় মুখ্যমন্ত্রী পাহাড়, জঙ্গলমহল সর্বত্রই শান্তি রক্ষার বার্তা দেন। সেইসঙ্গেই রাজ্যের ঐক্যের পক্ষে জোরদার সওয়াল করেন তিনি।
প্রসঙ্গত, জিটিএতে তরাই ডুয়ার্সের ১৯৬টি মৌজার অন্তর্ভূক্তির প্রশ্নে জটিলতা ক্রমেই বাড়ছিল। অন্তর্ভূক্তির দাবিতে অনড় গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা পাশে পেয়েছে আদিবাসী বিকাশ পরিষদের বহিষ্কৃত নেতা জন বার্লাকে। পাল্টা দাবিতেও ক্রমেই চাপ বাড়িয়েছে বীরসা তিরকের পরিচালনাধীন আদিবাসী বিকাশ পরিষদের নেতৃত্বে ডুয়ার্সের ২৬টি গণসংগঠনকে নিয়ে তৈরি জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটি।



First Published: Tuesday, April 24, 2012 - 20:03


comments powered by Disqus