বন্‍‍ধে উত্তেজনা নিয়ে বার্লা-তিরকে তরজা

Last Updated: Monday, April 23, 2012 - 15:10

ডুয়ার্সের জিটিএভুক্তির দাবিতে তাঁরা অনড়। মোর্চা ও জন বার্লা গোষ্ঠীর ডাকে অনির্দিষ্টকালীন ডুয়ার্স বন্‍‍ধের প্রথম দিন একথা জানালেন জন বার্লা নিজেই। এদিন ফোনে এই আদিবাসী নেতা জানান, রাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি তাঁরা।
এছাড়া, দিনকয়েক আগে মুখ্যমন্ত্রীকে পাহাড়ে ঢুকতে দেবেন না বলে বিমল গুরুং যে হুমকি দিয়েছিলেন, তা তিনি সমর্থন করেন না বলে জানান আদিবাসী বিকাশ পরিষদের এই বহিষ্কৃত নেতা। বার্লা বলেন, "আমরা আলোচনায় বসতে প্রস্তুত। কিন্তু রাজ্য সরকার আমাদের সভা করার অনুমতি দিক।" ডুয়ার্সের জিটিএভুক্তির দাবি করলেও তাঁরা মোর্চার পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবি সমর্থন করেন না বলে পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন জন বার্লা।
জন বার্লার বক্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করে আদিবাসী বিকাশ পরিষদের রাজ্য সভাপতি বীরসা তিরকে বলেন, "মোর্চার সঙ্গে হাত মেলানোয় বহু দিন আগেই জন বার্লাকে আদিবাসী বিকাশ পরিষদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। ফলে তাঁর এসব কথা বলার এক্তিয়ার নেই।" বীরসা তিরকের অভিযোগ, জমি দখলের রাজনীতি করছেন জন বার্লা। তাই রবিবার আদিবাসী বিকাশ পরিষদের বন্‍‍ধ শান্তিপূর্ণ হলেও, বার্লাদের ডাকা বন্‍‍ধ অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে।
মোর্চা ও বার্লা গোষ্ঠীর বন্‍‍ধে অশান্তির অন্য কারণ ব্যখ্যা করেছেন তরাই-ডুয়ার্স আদিবাসী বিকাশ পরিষদের নেতা রাজেশ লাকড়া। তাঁর দাবি, "জন বার্লাদের ডাকা বন্‍ধ সমর্থন করেননি ডুয়ার্সের আদিবাসীরা। বিভিন্ন জায়গায় প্রতিরোধ হয়েছে। তাই সংঘর্ষ বেঁধেছে।"



First Published: Monday, April 23, 2012 - 15:10


comments powered by Disqus