ধর্ষিতার অভিযোগ নিতে টালবাহানা থানায়, ফেরার তৃণমূল নেতা

ধর্ষিতার অভিযোগ নিতে টালবাহানা থানায়, ফেরার তৃণমূল নেতা

ধর্ষিতার অভিযোগ নিতে টালবাহানা থানায়, ফেরার তৃণমূল নেতাওসি না থাকায় ধর্ষিতা কিশোরীর  অভিযোগ নিতে অস্বীকার করল মহিলা থানা। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি শহরে। তাঁর বিরুদ্ধে দীর্ঘ দিন ধরে চলতে থাকা শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ জানাতে গত কয়েকদিন ধরে কাঁথি মহিলা থানায় ঘুরছিলেন ওই কিশোরীর। কিন্তু ওসি বাইরে গেছেন, এই অজুহাতে বারে বারেই ধর্ষিতাকে ফিরিয়ে দেন কর্তব্যরত মহিলা পুলিসকর্মীরা। এমনই অভিযোগ ওই কিশোরীর পরিবারের।

বাবা মত্‍সজীবী। অধিকাংশ সময় থাকেন বাইরে। সংসার চালাতে মাকেও কর্মসূত্রে বাড়ির বাইরে থাকতে হয়। সেই সুযোগে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি থানার একটি গ্রামের বাসিন্দা নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরে সহবাস করছিল এলাকার তৃণমূল নেতা অজয় সাউ। কিশোরীর অভিযোগ, সেইসময় ওই তৃণমূল নেতা তাকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে। ঘটনার কথা জানালে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় ওই তৃণমূল নেতা। তার জন্যই সে এতদিন সে চুপ করে ছিল বলে দাবি তার পরিবারের। 

কিছুদিন আগে মেয়েটির পরিবার সব কথা জানতে পারে। জানা যায় সে পাঁচ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা। এরপরই মঙ্গলবার ওই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে কাঁথি মহিলা থানায় অভিযোগ জানাতে যায় ওই কিশোরী ও তার পরিবার। কিন্তু ওসি না থাকার অজুহাতে কাঁথি মহিলা থানা ধর্ষণের অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে বলে অভিযোগ করেছে ওই কিশোরীর পরিবার।

ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর থেকে এলাকা থেকে গা ঢাকা দিয়েছে তৃণমূল নেতা অজয় সাউ। এদিকে পুলিসও অভিযোগ নিতে অস্বীকার করায় চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে ওই ধর্ষিতা কিশোরীর পরিবার।

First Published: Wednesday, January 02, 2013, 10:01


comments powered by Disqus