জল ছাড়া নিয়ে ডিভিসির সঙ্গে রাজ্য সরকারের বিবাদ অব্যাহত

জল ছাড়া নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে  ডিভিসির  সংঘাতে কোনও ছেদ পড়ল না। উল্টে চাপান উতোর আরও বাড়ল। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কার্যত মিথ্যাচারের অভিযোগ আনল ডিভিসি। রাজ্যের দাবি নস্যাত করে ডিভিসি ও গালুডি কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিল, জল ছাড়া হয়েছে রাজ্যকে জানিয়েই। জল ছাড়ার পরিমাণ নিয়েও মত পার্থক্য রয়েছে দুই পক্ষের। জলকাজিয়া নিয়ে ২১ অক্টোবর নবান্নে ডিভিসির সঙ্গে বৈঠক করবে রাজ্য সরকার। বৈঠকে থাকবেন ডিভিসি চেয়ারম্যান।

Updated: Oct 17, 2013, 08:55 PM IST

জল ছাড়া নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে  ডিভিসির  সংঘাতে কোনও ছেদ পড়ল না। উল্টে চাপান উতোর আরও বাড়ল। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কার্যত মিথ্যাচারের অভিযোগ আনল ডিভিসি। রাজ্যের দাবি নস্যাত করে ডিভিসি ও গালুডি কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দিল, জল ছাড়া হয়েছে রাজ্যকে জানিয়েই। জল ছাড়ার পরিমাণ নিয়েও মত পার্থক্য রয়েছে দুই পক্ষের। জলকাজিয়া নিয়ে ২১ অক্টোবর নবান্নে ডিভিসির সঙ্গে বৈঠক করবে রাজ্য সরকার। বৈঠকে থাকবেন ডিভিসি চেয়ারম্যান।
তবে ডিভিসি দিচ্ছে অন্য তথ্য। 
 
বৃহস্পতিবার ডিভিসির পাঞ্চেত ও মাইথ জলাধার থেকে মোট ৩২ হাজার কিউসেক জল ছাড়া হয়েছে।  
 
রাজ্য বলছে, ৬০ হাজার কিউসেক জল ছেড়েছে গালুডি। কিন্তু গালুডি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার গালুডি ব্যারেজ থেকে জল ছাড়া হয় ৫৬ হাজার ৮০০ কিউসেক জল।
রাজ্য বলছে, জল ছাড়া নিয়ে তাঁদের তেমনভাবে কোনও তথ্য জানানো হয় না।
 
গালুডি ব্যারেজ কর্তৃপক্ষের দাবি, গত কয়েক দিন যে পরিমাণ জল তারা ছেড়েছে, তার থেকে অনেকটাই কম ছাড়া হয়েছে বৃহস্পতিবার। জল ছাড়ার আগে প্রতিবারই দুই মেদিনীপুরের প্রশাসনিক কর্তা ও জলসম্পদ ভবনকে  জানানো হয়।   
একই বক্তব্য ডিভিসি কর্তৃপক্ষেরও।
 
হাইপাওয়ার্ড কমিটিও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানিয়েছে, জল ছাড়া নিয়ে কোনও তথ্য তাদের কাছেও ছিল না। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের কাছে নালিশ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের বন্যাকে ম্যান মেড বলেও আখ্যা দিয়েছেন। এখন কোথাকার জল কোথায় গড়ায়, তার দিকেই তাকিয়ে সকলে।
 
 

Tags: