ভুতুড়ে ইলেকট্রিক বিল কাঠফাটা গরমেও কাঁপুনি ধরাল

Last Updated: Saturday, May 11, 2013 - 10:04

ছোটখাট চায়ের দোকান চালিয়ে দিন গুজরান। তার মধ্যে বাড়িতে এসেছে ৮৭ লক্ষ টাকার ইলেকট্রিক বিল। ইলেকট্রিক বিলের এই বিপুল অঙ্কে মাথায় হাত পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথির বৈকুন্ঠপুর গ্রামের বাসিন্দা প্রভাংশু শেখর জানার। বিলের অঙ্ক দেখে শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনি। কাঁথি বিদ্যুত দফতরে অবিযোগ জানিয়েও কোনও সদুত্তর মেলেনি বলে অবিযোগ দুস্থ এই গ্রাহকের। কাঁথির বৈকুন্ঠপুর গ্রামের বাসিন্দা প্রভাংশু শেখর জানা। ছোটখাটো একটি চা দোকান চালিয়েই সংসার টানতেন তিনি। নুন  আনতে পান্তা ফুরনো সংসারে গোদের ওপর বিষ ফোঁড়া এমাসের ইলেকট্রিক বিল। বিলের অঙ্ক শুনে চমকে উঠতে হয়। প্রভাংশু শেখর জানার একমাসের বিদ্যুত বিল এসেছে সাতাশি লক্ষ টাকা। বিলের অহ্ক দেখে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন দুস্থ এই গ্রাহক।
বিশাল অঙ্কের এই বিল নিয়ে কাঁথি বিদ্যুত দফতরে অভিযোগও জানিয়েছেন প্রভাংশু শেখর জানার পরিবার। বিদ্যুত দফতরের থেকে মেলেনি কোনও সদুত্তর। দফতরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে অনেকসময় এই ধরনের বিভ্রাট তৈরি হয়।
যান্ত্রিক গোলযোগের কারনেই যদি এই বিভ্রাট হয়ে থাকে তার দায়িত্ব কে নেবে সেপ্রশ্নের অবশ্য কোনও উত্তর মেলেনি কাঁথি বিদ্যুত দফতরের তরফে। 



First Published: Saturday, May 11, 2013 - 15:41


comments powered by Disqus