ভাঙচুড়ের দায়ে মামলা দায়ের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অধীর চৌধুরীর বিরুদ্ধে

মুর্শিদাবাদে জেলাশাসকের বাংলোয় ভাঙচুরের ঘটনায় কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর রঞ্জন চৌধুরী সহ পাঁচ থেকে সাতজন কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে সুয়োমোটো এফআইআর করল পুলিস। জেলাশাসকের দফতরের তরফে কোনও অভিযোগ করা হয়নি বলেই জানিয়েছেন এসপি হুমায়ন কবীর। ঘটনার বিস্তারিত প্রমাণ হিসেবে বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমগুলির কাছে ভিডিও ফুটেজ চাওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Updated: Feb 8, 2013, 02:31 PM IST

মুর্শিদাবাদে জেলাশাসকের বাংলোয় ভাঙচুরের ঘটনায় কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর রঞ্জন চৌধুরী সহ পাঁচ থেকে সাতজন কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে সুয়োমোটো এফআইআর করল পুলিস। জেলাশাসকের দফতরের তরফে কোনও অভিযোগ করা হয়নি বলেই জানিয়েছেন এসপি হুমায়ন কবীর। ঘটনার বিস্তারিত প্রমাণ হিসেবে বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমগুলির কাছে ভিডিও ফুটেজ চাওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।
গতকাল ডেপুটেশন না দিতে পেরে বহরমপুরে জেলাশাসকের বাংলোয় ভাঙচুর চালিয়ে ছিল কংগ্রেস কর্মীরা। পুলিসি সন্ত্রাসের অভিযোগে বৃহস্পতিবার জেলাশাসকের দফতরের সামনে বিক্ষোভ-অবস্থান শুরু করে কংগ্রেস। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী।  এরপর জেলাশাসকের কাছে ডেপুটেশন দিতে যায় কংগ্রেসের প্রতিনিধিদল।  
দফতরে জেলা শাসককে না পেয়ে বিক্ষোভ-অবস্থান  বন্ধ রেখে মিছিল করে জেলাশাসকের বাংলোয় পৌঁছয় কংগ্রেস কর্মীরা। ভিতরে ঢুকে শুরু হয় ব্যাপক ভাঙচুর। তাঁদের নিরস্ত করার চেষ্টা করেন অধীর চৌধুরী। এসব ঘটনার বেশ কিছুক্ষণ পর ডেপুটেশন নেন জেলাশাসক।