২৪ ঘণ্টার খবরের জের, ১৬ বছর পর শিকল মুক্ত মালদার তরুণী

২৪ ঘণ্টার খবরের জের। মালদার বামনগোলায় ষোল বছর ধরে বিবস্ত্র অবস্থায় শিকলবন্দি যুবতীকে উদ্ধার করল জেলা প্রশাসন। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় এ খবর প্রথম সম্প্রচারিত হয়। এরপরই উদ্যোগী হয় জেলা প্রশাসন। মালদা শহর থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে বামনগোলা ব্লক। সেখানকারই মদনাবতী পঞ্চায়েতের পশ্চিমপাড়ায় বাঁশঝাড়ে শিকলবন্দি অবস্থায় ষোল বছর কাটিয়ে দিয়েছেন এই যুবতী।

Updated: Jul 12, 2014, 01:26 PM IST

২৪ ঘণ্টার খবরের জের। মালদার বামনগোলায় ষোল বছর ধরে বিবস্ত্র অবস্থায় শিকলবন্দি যুবতীকে উদ্ধার করল জেলা প্রশাসন। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। গতকাল ২৪ ঘণ্টায় এ খবর প্রথম সম্প্রচারিত হয়। এরপরই উদ্যোগী হয় জেলা প্রশাসন। মালদা শহর থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে বামনগোলা ব্লক। সেখানকারই মদনাবতী পঞ্চায়েতের পশ্চিমপাড়ায় বাঁশঝাড়ে শিকলবন্দি অবস্থায় ষোল বছর কাটিয়ে দিয়েছেন এই যুবতী।

কৈশোরে কামড়ে দেওয়ার প্রবণতা ধরা পড়ে তার মধ্যে। আতঙ্কিত পরিবার প্রথমে ঘরেই আটকে রাখে তাকে। কিন্তু ঘরের মধ্যেই সে মাটি খুঁড়তে শুরু করায় আর ঝুঁকি নেননি তাঁরা। চিকিত্সার খরচ জোগাতে হিমশিম খেতে হচ্ছিল। তারপর থেকেই পাড়ার বাঁশঝাড়ে ঘরের মেয়েকে শিকলে বেঁধে ফেলে রাখে পরিবার। সেদিনের কিশোরী ছাত্রী আজ একত্রিশের যুবতী।
এই ঘটনা চব্বিশ ঘণ্টায় সম্প্রচার হওয়ার পর, স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান তপতী মুর্মু জানান, তিনি ব্যবস্থা নেবেন। কথা রেখেছেন তপতী মুর্মু।
শনিবার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উদ্ধার করা হয়েছে ওই যুবতীকে। ভর্তি করা হয়েছে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

যুবতীর চিকিত্সা শুরু হয়েছে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। জেলার বেশ কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন যুবতীর চিকিত্সায় সব রকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে। যুবতীর পরিবারকেও সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছে ব্লক প্রশাসন।