কমিশনের পাশে দাঁড়ালেন রাজ্যপাল, এখনও বাহিনীর বিরোধিতায় পঞ্ছায়েত মন্ত্রী

পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাহিনী বিতর্কে কমিশনের পাশেই দাঁড়ালেন রাজ্যপাল। তিনিও মনে করেন, বাহিনী নিয়ে বিবাদ মেটাতে সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। অন্যদিকে রাজ্য পুলিস দিয়ে ভোট করা সম্ভব বলে ফের দাবি করলেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

Updated: Jun 27, 2013, 12:09 PM IST

পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাহিনী বিতর্কে কমিশনের পাশেই দাঁড়ালেন রাজ্যপাল। তিনিও মনে করেন, বাহিনী নিয়ে বিবাদ মেটাতে সুপ্রিম কোর্টে গিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। অন্যদিকে রাজ্য পুলিস দিয়ে ভোট করা সম্ভব বলে ফের দাবি করলেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।
রাজ্য জুড়ে সন্ত্রাসের ছবি। ইতিমধ্যেই সন্ত্রাসের বলি দশজন।
এই অবস্থায় পর্যাপ্ত বাহিনী ছাড়া ভোট যে সম্ভব নয়, তা প্রথম থেকেই তা জানিয়ে এসেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। আর এই দাবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টেরও দ্বারস্থ হয়েছে তাঁরা।
কমিশন সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ায় বেজায় ক্ষুব্ধ রাজ্য সরকার।
রাজ্য ক্ষুব্ধ হলেও রাজ্যপাল এম কে নারায়ণন কিন্তু এই বিতর্কে কমিশনের পাশেই।
পঞ্চায়েত ভোটে পর্যাপ্ত বাহিনীর পক্ষে রাজ্যপালের এই অবস্থান যে সরকারের অস্বস্তি আরও বাড়াল, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। যদিও বাহিনী বিতর্কে নিজেদের অবস্থানে এখন অনড় পঞ্চায়েতমন্ত্রী।
তাহলে কী পর্যাপ্ত বাহিনীর ব্যবস্থা করতে পারবে রাজ্য সরকার? এই প্রশ্নের অবশ্য কোনও জবাব পাওয়া যায়নি পঞ্চায়েতমন্ত্রীর কাছ থেকে। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে, বাহিনী নিয়ে টানাপোড়েনের জের সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত গড়ানোর পরেও কেন এমন মন্তব্য পঞ্চায়েতমন্ত্রীর গলায়? কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করলে কি ধাক্কা খাওয়ার আশঙ্কা করছে শাসক দল? প্রশ্ন বিরোধী শিবিরের।