রাতের অন্ধকারে গাছ পাচার, অভিযোগ পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে

জঙ্গলের গাছ কেটে পাচার করার অভিযোগ উঠলো তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের ভাতার থানার ওড়গ্রাম বনাঞ্চলে। প্রতিদিন সন্ধ্যায় গাছ কাটা হয় এবং কাটা গাছ রাতেই অন্যত্র পাচার করা হয় বলে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন।

Updated: Sep 16, 2012, 10:35 AM IST

জঙ্গলের গাছ কেটে পাচার করার অভিযোগ উঠলো তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের ভাতার থানার ওড়গ্রাম বনাঞ্চলে। প্রতিদিন সন্ধ্যায় গাছ কাটা হয় এবং কাটা গাছ রাতেই অন্যত্র পাচার করা হয় বলে স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন।
অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন বিডিও। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত, স্থানীয় তৃণমূল পঞ্চায়েত প্রধান। ভাতার থানার ওড়গ্রাম, সংলগ্ন রামচন্দ্রপুর, নামোডাঙ্গা সহ একাধিক গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগ, সন্ধে হলেই মাহাত্তাগ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান নিখিল মাঝি ও তাঁর দলবল বনের গাছ কাটা শুরু করেন। শুধু তাই নয় রাতের অন্ধকারেই সেই গাছ পাচারও করে দেন তাঁরা। বাসিন্দাদের অভিযোগ, ওই পঞ্চায়েত প্রধানকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন বি এড কলেজ তৈরির জন্য গাছ কাটার কাজ চলছে। বিট আধিকারিক এবং রেঞ্জারকে চিঠি দিয়ে গোটা বিষয়টি জানান গ্রামবাসীরা। তখনই গাছ পাচারের বিষয়টি সামনে আসে।
 
গাছ পাচারের বিষয়টি জানতেন না বলে জানিয়েছেন বিডিও। গোটা ঘটনার তদন্তের আশ্বাস দেন বিডিও। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে  পঞ্চায়েত প্রধান এবং পঞ্চায়েত সদস্যের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে জানিয়েছেন তিনি।