স্বস্তির কালবৈশাখী রাজ্য জুড়ে কেড়ে নিল ৭ জনের প্রাণ

Last Updated: Saturday, May 3, 2014 - 21:33

গতকালের মতো আজও বৃষ্টির ছোঁয়া পেলেন শহরবাসী। সন্ধের পর কলকাতায় বৃষ্টি নামে। বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া গরমের হাত থেকে স্বস্তি দিয়েছে। নেমেছে তাপমাত্রার পারদ। ঝোড়ো হাওয়ায় নারকেলডাঙা এবং বেহালায় গাছ ভেঙে পড়েছে। এর জেরে নারকেলডাঙায় যান চলাচল ব্যাহত হয়। আগামী চব্বিশ ঘণ্টায় কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুত্সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বিভিন্ন জেলায় আজ ঝড়বৃষ্টি হয়েছে।

আজ ঝড়বৃষ্টিতে রাজ্যে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। কুচবিহার, জলপাইগুড়ি ও বর্ধমানে বাজ পড়ে নিহত হয়েছেন তাঁরা। আহতের সংখ্যা কমপক্ষে একুশ। বৃষ্টি হয়েছে কলকাতাতেও। আগামী চব্বিশ ঘণ্টায় রাজ্যজুড়ে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। শনিবার রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় কমবেশি ঝড়বৃষ্টি হয়েছে। তীব্র গরমের হাত থেকে স্বস্তি মিললেও উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে বাজ পড়ে একাধিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। কোচবিহারের তুফানগঞ্জে বাজ পড়ে মারা গেছেন তিনজন। আহতের সংখ্যা ছয়।

জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ি ও কোতোয়ালি থানা এলাকায় বাজ পড়ে মারা গেছেন দু-জন। ময়নাগুড়িতে বাজে আহত হয়েছেন এক মহিলা।

মাঠে কাজ করার সময় মঙ্গলকোটের কৈচরে বাজ পড়ে এক মহিলার মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন তাঁর স্বামী। পাণ্ডবেশ্বরে বাজ পড়ে মারা গেছেন এক জন। কোকওভেন থানা এলাকায় মাছ ধরতে গিয়ে বাজ পড়ে একজন আহত হয়েছেন। মেমারিতে মাঠে কাজ করতে গিয়ে বাজ পড়ে আহতের সংখ্যা বারো।

শনিবার দিনভর কলকাতায় রোদের তেজ ছিল কম। বয়েছে ঝোড়ো হাওয়া। সন্ধের পর শহরে বৃষ্টি নামে। বৃষ্টির সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া গরমের হাত থেকে স্বস্তি দিয়েছে। নেমেছে তাপমাত্রার পারদ। আগামী চব্বিশ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা পঁয়ত্রিশ ডিগ্রির কাছাকাছি থাকবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

শনিবার সন্ধেয় ঝড়বৃষ্টিতে বেহালা ও নারকেলডাঙায় গাছ ভেঙে পড়ে। গাছ ভাঙার জেরে নারকেলডাঙায় যান চলাচল ব্যাহত হয়।



First Published: Saturday, May 3, 2014 - 21:31


comments powered by Disqus