রেলে প্রকল্পের জন্য প্রয়োজন জমি অধিগ্রহণ: অধীর

রেলের প্রকল্প বাড়াতে হলে জমি অধিগ্রহণের প্রয়োজন। তবে জমির পরিবর্তে চাকরি দেওয়া সম্ভব নয়। আজ কাঁচরাপাড়ায় রেলের অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের একথা বললেন অধীর চৌধুরী। জমির পরিবর্তে চাকরি দিতে হলে রেল চালানোই অসম্ভব হয়ে উঠবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, শুধু প্রতিশ্রুতির জন্য প্রতিশ্রুতি নয়, বাংলায় রেলের সম্পত্তি ও প্রকল্প বাঁচাতে যাবতীয় উদ্যোগ নেবে রেল।

Updated: Nov 26, 2012, 01:57 PM IST

রেলের প্রকল্প বাড়াতে হলে জমি অধিগ্রহণের প্রয়োজন। তবে জমির পরিবর্তে চাকরি দেওয়া সম্ভব নয়। আজ কাঁচরাপাড়ায় রেলের অনুষ্ঠানে এসে সাংবাদিকদের একথা বললেন অধীর চৌধুরী। জমির পরিবর্তে চাকরি দিতে হলে রেল চালানোই অসম্ভব হয়ে উঠবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর বক্তব্য, শুধু প্রতিশ্রুতির জন্য প্রতিশ্রুতি নয়, বাংলায় রেলের সম্পত্তি ও প্রকল্প বাঁচাতে যাবতীয় উদ্যোগ নেবে রেল।
আজ কাঁচরাপাড়া ওয়ার্কশপের দেড়শো বছর পূর্তি উপলক্ষে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে এসে এ কথা বলেন রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী। একই সঙ্গে কাঁচরাপাড়ায় একটি রেল মিউজিয়াম গড়ে তোলার কথাও ঘোষণা করেন তিনি।
পূর্ব রেলের দেড়শো বছর পূর্তিতে কাঁচরাপাড়া ওয়ার্কশপে একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন রেল প্রতিমন্ত্রী অধীররঞ্জন চৌধুরী। রেল ইনস্টিটিউটের মাঠে  একটি জনসভাও করলেন তিনি। গতকাল থেকেই এই সভাকে কেন্দ্র করে বীজপুর এলাকায় তৈরি হয়েছিল চাপা উত্তেজনা। অধীর চৌধুরীর সভাস্থলের রাস্তা মুড়ে ফেলা হয়েছিল তৃণমূলের পতাকায়। সঙ্গে ছিল রেল প্রতিমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে নানা ধরনের ব্যাঙ্গাত্মক ব্যানার, ফেস্টুন। সভার পর, আজ নিউ গড়িয়া হল্ট স্টেশনেরও উদ্বোধন করবেন রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী।