দমকলের অবহেলায় মৃত্যু যুবকের

পুলিস ও দমকলের উপযুক্ত পরিকল্পনা ও পরিকাঠামোর অভাবে আবাসনের ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হল এক মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের। গতকাল পরিবারের সদস্যদের চোখ এড়িয়ে পুরুলিয়া শহরে আবাসনের ছাদের ওপর চিলেকোঠায় উঠে যায় সে। দীর্ঘ বারো ঘণ্টা ধরে চেষ্টা করেও তাঁকে নামাতে পারেননি পরিবারের সদস্যরা। পুলিসে খবর দেওয়া হয়। দমকল বাহিনী এসে ওই যুবকের কাছে পৌঁছনর চেষ্টা করে। কিন্তু চিলেকোঠার কার্নিশে চলে যায় ওই যুবক। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টার পরও তাঁকে নামানো সম্ভব হয়নি।

Updated: Mar 10, 2013, 01:05 PM IST

পুলিস ও দমকলের উপযুক্ত পরিকল্পনা ও পরিকাঠামোর অভাবে আবাসনের ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যু হল এক মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের। গতকাল পরিবারের সদস্যদের চোখ এড়িয়ে পুরুলিয়া শহরে আবাসনের ছাদের ওপর চিলেকোঠায় উঠে যায় সে। দীর্ঘ বারো ঘণ্টা ধরে চেষ্টা করেও তাঁকে নামাতে পারেননি পরিবারের সদস্যরা। পুলিসে খবর দেওয়া হয়। দমকল বাহিনী এসে ওই যুবকের কাছে পৌঁছনর চেষ্টা করে। কিন্তু চিলেকোঠার কার্নিশে চলে যায় ওই যুবক। দীর্ঘক্ষণের চেষ্টার পরও তাঁকে নামানো সম্ভব হয়নি।
এরপরই জলকামান দিয়ে তাঁকে নামানোর চেষ্টা করে দমকল। এখানেই বিপত্তি ঘটে যায়। জলকামানের তোড়ে চল্লিশ ফুট ওপর থেকে নীচে পড়ে যায় ওই যুবক। গুরুতর জখম অবস্থায় প্রথমে তাঁকে একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে বোকারো স্থানান্তরিত করার সময় পথেই ওই যুবকের মৃত্যু হয়। পুলিস ও দমকলবাহিনীর পরিকল্পনা ও পরিকাঠামোর অভাবেই ওই যুবকের মৃত্যু হল বলে অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের।
মানসিক ভারসাম্যহীন যুবককে ছাদ থেকে নামাতে জল ব্যবহার করেছিল দমকল। তা কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন পুরুলিয়া  দমকল স্টেশনের ওসি। তবে তাঁর দাবি, জল দিয়ে ওই যুবককে ব্যস্ত রাখার চেষ্টা হয়েছিল। সেই ফাঁকে তাঁর কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা করেছিলেন দমকল কর্মীরা। কিন্তু তার আগেই ছাদের কার্নিশ থেকে ঝাপ দেয় সে।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close