বিবেক উৎসবে ছয় কোটির অলিক স্বপ্ন বিললেন মুখ্যমন্ত্রী

Last Updated: Saturday, January 5, 2013 - 18:53

কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যের সুদ মকুব না করলে দিল্লিতে গিয়ে আন্দোলন করার হুঁশিয়ারি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ মেদিনীপুরে বিবেক ছাত্র উত্‍সবের সমাপ্তি অনুষ্ঠানের মঞ্চে তিনি অভিযোগ করেন, বামফ্রন্ট সরকারের আমলে ইচ্ছে মতো ধার করতে দিয়েছে কেন্দ্র। যার জেরে বেড়ে গেছে দেনার পরিমাণ। তা সত্ত্বেও পঞ্চায়েত নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে আজ কার্যত কল্পতরু হয়ে ওঠেন মুখ্যমন্ত্রী। 
রাজ্য পুলিসের যে সব সাব ইনস্পেক্টর এবং কনস্টেবলের চাকরির মেয়াদ ১৫ বছর পূর্ণ হয়েছে, তাঁদের এখন থেকে জেলাতেই পোস্টিং দেওয়া হবে। এই মর্মে সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। আজ মেদিনীপুরে এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।
অসংখ্য প্রকল্পের কথা ঘোষণা করলেও, রাজ্যের বেহাল আর্থিক অবস্থাটা বিলক্ষণ জানেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই কারণেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ানো বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কেন্দ্রের মতো আগের সরকারকেও পড়তে হল মুখ্যমন্ত্রীর তোপের মুখে। "অন্য দলকে সঙ্গে নিয়ে এখন থেকেই অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে সিপিআইএম", আজ মেদিনীপুর কলেজ মাঠে এই অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে জঙ্গলমহল সফরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলেজ, হাসপাতাল, স্টেডিয়াম, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক, আইটি হাবসহ একগুচ্ছ প্রকল্পের ঘোষণা করেন।
রাজ্যের প্রতিটি জেলার প্রতিটি ব্লক ও পুরসভাতেই বিবেক উত্‍‍সবের আয়োজনে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। শুধুমাত্র জঙ্গলমহলের তিনজেলায় এই উত্‍‍সবের জন্য সরকারি তহবিল থেকে বরাদ্দ হয়েছে ৬ কোটি টাকা। উত্‍‍সব ঘিরে বিপুল অর্থ ব্যয় নিয়ে সরব হয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিকদল। আজ পূর্ব মেদিনীপুরের চণ্ডীপুরে সর্বভারতীয় কৃষকসভার ৩৬ তম জেলা সম্মেলনে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা সূর্যকান্ত মিশ্রর প্রশ্ন তোলেন বিবেক উৎসব নিয়েই। তাঁর অভিযোগ, "মেদিনীপুরে ৪ কোটি টাকার প্রকল্প করতে গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। অথচ তাঁর সফরেই খরচ হয়েছে ১ কোটি টাকা।" বিবেক উৎসবে ১ কোটি খরচ করা হয়েছে বলে মত বিরোধী দলনেতার।



First Published: Saturday, January 5, 2013 - 18:53


comments powered by Disqus