বিনপুরে মমতার সভা ফাঁকা, শুনতে হল না `বেয়ারা` প্রশ্নও

Last Updated: Tuesday, March 19, 2013 - 17:59

গত বছর আটই অগাস্ট বেলপাহাড়িতে মুখ্যমন্ত্রীর সভায় প্রশ্ন করে হাজতে যেতে হয়েছিল শিলাদিত্য চৌধুরীকে। আজ মুখ্যমন্ত্রী সভা করলেন বিনপুরে, যেখানে শিলাদিত্যর বাড়ি। ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়া স্থানীয় কৃষকরা আগেই বলেছিলেন, শিলাদিত্য হতে চান না বলেই তাঁরা মুখ্যমন্ত্রীকে কোনও সমস্যার কথা জানাবেন না। শিলাদিত্য আতঙ্কের ছায়াতেই ঢাকা থাকল বিনপুরে মুখ্যমন্ত্রীর সভা। অনেকটাই ফাঁকা রইল সভাস্থল। ৮ অগাস্ট বেলপাহাড়িতে মুখ্যমন্ত্রীর সভায় ছিল উপচে পড়া ভিড়।  
 
সাত মাস কয়েকদিনের মাথায় ফের সেই বিনপুরেই সভা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। সভায় হাজার তিনেক মানুষ। ক্যামেরা ঘুরলে দেখা গেল আসনের অনেকাংশই ফাঁকা।  তবু হার মানতে নারাজ মুখ্যমন্ত্রী।  
 
হাজার হাজার মানুষ ,স্রোতের মতো লোক ঢুকছে এমন কথা বললেন মুখ্যমন্ত্রী। পরে আবার বললেন, ঘোষিত সময়ের আগেই সভা শুরু করে দিয়েছেন তিনি। তাই হয়তো লোক হয়নি। আমার একটা প্রবলেম। মমতা বললেন, `আগেই চলে আসি....
 
কিন্তু এবার কেন মুখ্যমন্ত্রীকে নিজমুখেই  হাজার হাজার মানুষ সভায় আসছে একথা ঘোষণা করতে হল? কেনই বা মাত্র সাড়ে সাতমাসের মাথায় মুখমন্ত্রীর সভায় বিনপুরবাসীর উত্‍‍সাহে ভাটা?
 
৮ অগাস্ট, ২০১২। বিনপুরের জনসভায় মুখ্যমন্ত্রীকে সারের দাম বাড়ি নিয়ে প্রশ্ন করেছিলেন প্রান্তিক কৃষক শিলাদিত্য চৌধুরী। মুখ্যমন্ত্রীর তরফে পরিবর্তে জুটেছিল মাওবাদী তকমা। জেলে যেতে হয়েছিল শিলাদিত্যকে। শিলাদিত্যের সেই ঘটনাই বড় আতঙ্ক বিনপুরের মানুষের। শিলাদিত্য আতঙ্কের ছায়া পড়ল মঙ্গলবার বিনপুরে মুখ্যমন্ত্রীর সভায়। আর মুখ্যমন্ত্রী বললেন, `এত গরমের মধ্যে এত মা বোনেরা এসেছেন আমার হৃদয়পূর্ণ হয়ে গেছে`।
 



First Published: Tuesday, March 19, 2013 - 18:09


comments powered by Disqus