এখনও তিমিরেই কেন্দ্রীয় বাহিনী

পঞ্চায়েতে ভোটে বাহিনী পাওয়া যাবে কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েই গেল। স্বরাষ্ট্র দফতেরের বিশেষ সচিব মহাকরণে এসে বৈঠকের পরও আদৌও কেন্দ্রীয় বাহিনী পাওয়া যাবে কিনা সেবিষয়ে কোনও মন্তব্য করলেন না। শুক্রবার রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে মহাকরণে রাজ্যের পদস্থ আমলাদের সঙ্গে বৈঠকে করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বিশেষ সচিব অনিল গোস্বামী। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি।

Updated: Jun 21, 2013, 10:40 PM IST

পঞ্চায়েতে ভোটে বাহিনী পাওয়া যাবে কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েই গেল। স্বরাষ্ট্র দফতেরের বিশেষ সচিব মহাকরণে এসে বৈঠকের পরও আদৌও কেন্দ্রীয় বাহিনী পাওয়া যাবে কিনা সেবিষয়ে কোনও মন্তব্য করলেন না। শুক্রবার রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে মহাকরণে রাজ্যের পদস্থ আমলাদের সঙ্গে বৈঠকে করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বিশেষ সচিব অনিল গোস্বামী। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। মুখ্যসচিব সঞ্জয় মিত্র, স্বরাষ্ট্রসচিব বাসুদেব বন্দ্যোপাধ্যায়, ডিজি নপরাজিত মুখোপাধ্যায়, পুলিস কমিশনার সুরজিত্‍ কর পুরকায়স্থ সহ অন্যান্য আধিকারিকদের সঙ্গে প্রায় ঘণ্টা খানেক বৈঠক করেন তিনি।
রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে তথ্য দেওয়া হয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বিশেষ সচিবকে। পাল্টা তথ্য দিয়ে রাজ্যের দেওয়া তথ্যকে চ্যালেঞ্জ করেন অনিল গোস্বামী। পঞ্চায়েত ভোটে মনোনয়ন পত্র তোলা ও জমা দেওয়া নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। অনিল গোস্বামীর বক্তব্য ছিল, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে বেশি তথ্য রয়েছে। যা রাজ্যে বাড়তে থাকা সন্ত্রাসের চিত্রই তুলে ধরে। পঞ্চায়েত ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়েও বৈঠকে সরব হন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের বিশেষ সচিব। বিষয়টিতে রাজ্যকেই দোষারোপ করে তাঁর বক্তব্য ছিল অনেক দেরিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী চেয়েছে রাজ্য সরকার। আরও আগেই বাহিনী চাওয়া উচিত ছিল। যদিও কেন্দ্রীয় বাহিনী আদৌ পাঠানো হবে কিনা সেবিষয়ে কিছুই জানাতে চাননি অনিল গোস্বামী।
 
আগামী ৩০ জুন থেকেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব হিসেবে দায়িত্বভার নেবেন অনিল গোস্বামী। মহাকরণের এই বৈঠক পঞ্চায়েত ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী নিয়ে সমস্যা সমাধানে কোনও অগ্রগতি হলনা বলেই মনে করছে প্রশাসনিক মহল।