বারাসত ধর্ষণ: গ্রেফতার ২, সঙ্কটজনক মৃতার স্বামী

Last Updated: Sunday, December 30, 2012 - 18:23

বারাসতে ধর্ষণ এবং খুনের ঘটনার তদন্তে নেমে পুকুর থেকে অস্ত্র উদ্ধার করল পুলিস। সোনাখরকি এলাকায় ওই পুকুরের পাড় থেকেই মহিলার দেহ উদ্ধার হয়েছিল। পুকুরে তল্লাসি চালিয়ে আজ সেখান থেকে একটি হাতুড়ি এবং একটি হাঁসুয়া উদ্ধার হয়েছে।
ইছা মোড়ল নামে ইটভাটার এক কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই অস্ত্র উদ্ধার করেছেন গোয়েন্দারা। তাঁদের অনুমান, ওই অস্ত্র দিয়েই মহিলাকে আঘাত করা হয় এবং তাতেই তাঁর মৃত্যু হয়। ইছা মোড়লের মেডিক্যাল টেস্ট হবে। ঘটনায় বারোজনকে আটক করেছে পুলিস। তারা সকলেই ইটভাটার কর্মী। 
মহিলার ওপর শারীরিক অত্যাচারের প্রাথমিক প্রমাণ মিলেছে। আজ সকালে সিআইডির গোয়েন্দারা ঘটনাস্থল ঘুরে নমুনা সংগ্রহ করেন। বিকেলে ডিআইজি, সিআইডি প্রেসিডেন্সি রেঞ্জ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
অন্যদিকে, মহিলার স্বামীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁর মুখে অ্যাসিড ঢেলে দেয় দুষ্কৃতীরা। কিডনি ও পাকস্থলীতে সংক্রমণের কারণে আরজি কর মেডিক্যাল হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে তাঁকে। বারাসতের ঘটনার প্রতিবাদে, চাঁপাডালি মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বামফ্রন্ট। এর আগে রাসত কাণ্ডের প্রতিক্রিয়ায় পুলিসি নিষ্কৃয়তার অভিযোগ তুললেন সিপিআইএম নেতা অমিতাভ নন্দী। তিনি বলেন, "বারাসতে আইনশৃঙ্খলা বলে কিছু নেই। আইনশৃঙ্খলা রক্ষা করতে প্রশাসন সম্পূর্ণ ব্যর্থ।"



First Published: Sunday, December 30, 2012 - 18:23


comments powered by Disqus