কলেজ অধ্যক্ষকে চেন দিয়ে পেটাল এসএফআই, পরীক্ষা নিয়ামক হেনস্থা হলেন টিএমসিপির হাতে

শিক্ষায় নৈরাজ্যের নয়া `নিদর্শন` কায়েম হল আজ রাজ্যের বুকে। ডান-বাম উভয়দলের ছাত্র সংগঠন গুলি অদ্ভুত ভাবে শিক্ষাকে শিকেয় তুলতে এক পংন্তিতে এসে দাঁড়াল। কলেজের অধ্যক্ষকে সাইকেলের চেন দিয়ে পেটানোর অভিযোগ উঠল এসএফআই এর বিরুদ্ধে। আর নকল ধরতে গিয়ে টিএমসিপির সদস্যদের হাতে হেনস্থা হলেন পরীক্ষা নিয়ামক।

Updated: Aug 31, 2013, 06:14 PM IST

শিক্ষায় নৈরাজ্যের নয়া `নিদর্শন` কায়েম হল আজ রাজ্যের বুকে। ডান-বাম উভয়দলের ছাত্র সংগঠন গুলি অদ্ভুত ভাবে শিক্ষাকে শিকেয় তুলতে এক পংন্তিতে এসে দাঁড়াল। কলেজের অধ্যক্ষকে সাইকেলের চেন দিয়ে পেটানোর অভিযোগ উঠল এসএফআই এর বিরুদ্ধে। আর নকল ধরতে গিয়ে টিএমসিপির সদস্যদের হাতে হেনস্থা হলেন পরীক্ষা নিয়ামক।
ছাত্রদের হাতে মার খেয়ে উত্তর ২৪ পরগনার কালিনগর কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মনোরঞ্জন নস্কর বসিরহাট মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি।
ক্যারাম খেলাকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত। সন্দেশখালির কালিনগর কলেজে গতকাল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ও এসএফআই সমর্থকদের মধ্যে ক্যারাম খেলা নিয়ে গণ্ডগোল হয়। আজ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের কাছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগে এনে বিক্ষোভ দেখায় এসএফআই সমর্থকরা। তদের দাবি অধ্যাপকদেরও মারধর করেছে তৃণমূল সমর্থকরা।
নকল ধরতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ামক সনাতন দাস। ঘটনাস্থল দক্ষিণ দিনাজপুরের হরিরামপুর কলেজ। অভিযোগ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে। কন্ট্রোলারের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। তাঁকে কলেজে আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ। গত দুদিন তিনি উত্তর দিনাজপুরের ইটাহারের মেঘনাদ সাহা কলেজে একের পর এক নকল ধরেন। নকল ধরলে ইটাহার কলেজে তাঁর দিকে তেড়ে আসে এক ছাত্র। আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা কেমন হচ্ছে, তা দেখতে তিনি যান হরিরামপুর কলেজে।