পুরুলিয়ায় ২ সদ্যোজাতের দেহ ছিঁড়ে খেল কুকুর, মাথায় ছিল হাসপাতালের ট্যাগ, দায় এড়াচ্ছে সদর হাসপাতাল কতৃপক্ষ

সদ্যোজাত শিশুর দেহ ছিঁড়ে খেয়েছে কুকুর। আর সেই দেহ পড়ে রয়েছে প্রকাশ্যে, পড়ে রয়েছে পুরুলিয়ার জেলা পরিষদ চত্ত্বরে। সাতসকালে  এমনই চমকে দেওয়া দৃশ্য দেখল পুরুলিয়া শহরের মানুষ।  কিন্তু দেহদুটি এল কোথা থেকে? কপালে ট্যাগ থাকায় এটা বোঝা যাচ্ছে দেবেন মাহাত সদর হাসপাতালে জন্ম। সেখানেই দুই সদ্যোজাতের জন্ম।

Updated: Nov 1, 2013, 02:25 PM IST

সদ্যোজাত শিশুর দেহ ছিঁড়ে খেয়েছে কুকুর। আর সেই দেহ পড়ে রয়েছে প্রকাশ্যে, পড়ে রয়েছে পুরুলিয়ার জেলা পরিষদ চত্ত্বরে। সাতসকালে  এমনই চমকে দেওয়া দৃশ্য দেখল পুরুলিয়া শহরের মানুষ।  কিন্তু দেহদুটি এল কোথা থেকে? কপালে ট্যাগ থাকায় এটা বোঝা যাচ্ছে দেবেন মাহাত সদর হাসপাতালে জন্ম। সেখানেই দুই সদ্যোজাতের জন্ম।
 
এখানেই প্রশ্ন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা নিয়ে। এব্যপারে আবার হাসপাতালের পাশে দাঁড়াচ্ছেন  জেলা পরিষদের সভাধিপতি সৃষ্টিধর মাহাত। তিনি আবার সাফাই দিচ্ছেন, "উদ্ধার হওয়া সদ্যোজাতেরা অবৈধ সন্তান।"
 
এ কেমন যুক্তি? বৈধ-অবৈধ, যাই হোক না কেন, সরকারি হাসপাতালে জন্ম হয়েছিল ওই দুই শিশুর। পরে তাঁদের মৃত্যু হয়। নিয়ম অনুযায়ী যা হওয়ার কথা ছিল তা কিন্তু হাসপাতাল করল না । দেহ চলে এল বাইরে।  কুকুরে খেল শিশুদুটির দেহ । হাসপাতালের কি কিছু করার ছিল না?