রাজ্যে বিপর্যয়, ঝড়ে মৃত ৫

ঝড়বৃষ্টিতে রাজ্যে মৃত্যু হল ৫ জনের। মহানবমীতে ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে গেল আসানসোল, দুর্গাপুর, পশ্চিম মেদিনীপুরের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। জামুড়িয়ার পড়াশিয়া কোলিয়ারি এলাকায় একটি মণ্ডপ ভেঙে পড়ে। মণ্ডপে শর্ট সার্কিট হয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়। পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোণা টাউনে দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। বর্ধমানের আউসগ্রামে ৩০০ বাড়ি ভেঙেছে। 

Updated: Oct 13, 2013, 08:41 PM IST

ঝড়বৃষ্টিতে রাজ্যে মৃত্যু হল ৫ জনের। মহানবমীতে ঝড়ে লন্ডভন্ড হয়ে গেল আসানসোল, দুর্গাপুর, পশ্চিম মেদিনীপুরের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। জামুড়িয়ার পড়াশিয়া কোলিয়ারি এলাকায় একটি মণ্ডপ ভেঙে পড়ে। মণ্ডপে শর্ট সার্কিট হয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়। পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোণা টাউনে দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে ৩ জনের। বর্ধমানের আউসগ্রামে ৩০০ বাড়ি ভেঙেছে। 
ঝড়ে আসানসোলের জামুড়িয়ার পড়াশিয়া কোলিয়ারি এলাকার একটি মণ্ডপ ভেঙে পড়ে। শর্ট সার্কিট হয়ে যায় গোটা মণ্ডপে। ঘটনাস্থলেই বিদ্যুত্‍স্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় দু জনের। গুরুতর আহত ছয় জন। 
বিধ্বংসী ঝড়ে প্রায় ধংসস্তূপে পরিণত হল কাঁকসার বসুধা এলাকা। ঝড়ে ভেঙে পড়েছে বহু বাড়ি। উপড়ে গেছে বহু গাছ। সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ আচমকাই ঘূর্ণি ঝড় ওঠে। ঝড়ে প্রায় আঠেরো জন  আহত হন। ঝড়ে বিপর্যস্ত গুসকরার বনকুল গ্রামও। ঝড়ের তাণ্ডবে ভেঙে পড়েছে প্রচুর কাঁচাবাড়ি। 
প্রবল ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের বহু গ্রাম। গাছ চাপা পড়ে সুকুমার ঘোষ নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে চন্দ্রকোনা টাউনে। কেশপুর, মেদিনীপুর সদর, চন্দ্রকোনা এক নম্বর ব্লকের শতাধিক বাড়ি ভেঙে পড়েছে। দেওয়াল চাপা পড়ে গুরুতর আহত হয়ে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি তিন জন।  
 
ঝড়বৃষ্টির জেরে পুরুলিয়ায় বেশকিছু মণ্ডপের তোরণ ভেঙে পড়েছে।দিনভর ঝড়বৃষ্টি হয়েছে বাঁকুড়ার বিভিন্ন এলাকায়। এদিকে দীঘায় সমুদ্রে তীব্র জলোচ্ছাস হয়। প্রশাসনের তরফ পর্যটক সমুদ্রে নামতে নিষেধ করা হয়েছে।