গেদেতে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ

Last Updated: Wednesday, June 12, 2013 - 09:43

কামদুনির পর এবার নদিয়ার গেদে। আবারও এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুন করার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার স্কুল থেকে বাড়ি ফেরেনি ষষ্ঠ শ্রেনির ওই ছাত্রী। মঙ্গলবার স্কুলের পাশের বাঁশবাগান থেকে ছাত্রীর দেহ উদ্ধার করেন স্থানীয় বাসিন্দারা।  তাঁদের অভিযোগ ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে ওই ছাত্রীকে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিস।
সোমবার স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল ষষ্ঠ শ্রেনির ছাত্রীটি। বৃষ্টির জন্য বাধ্য হয়েই পথের ধারে দাঁড়িয়ে পড়ে সে। বিকেল গড়িয়ে গেলেও ঘরে ফেরেনি মেয়ে। পরিবারের তরফে কৃষ্ণগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। প্রায় চব্বিশ ঘণ্টা পর স্কুলের কাছে একটি বাঁশ বাগান থেকে উদ্ধার হয় ছাত্রীর ক্ষতবিক্ষত দেহ। অভিযোগ ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে তাঁকে।
  
শুক্রবার দুপুরে একই ভাবে বারসতের কামদুনিতে ধর্ষণ করে খুন করা হয় কলেজ ফেরত ছাত্রীকে। সেই একই রকম নৃশংসতার সাক্ষী রইল গেদের উত্তরপাড়া। বাবা মারা গিয়েছেন। মা কথা বলতে পারেন না। দুই ভাই বোন আর মায়ের সংসার। অন্যদিনের মতোই সোমবারও ব্যাগ গুছিয়ে সে স্কুলে গিয়েছিল। বোতলে নেওয়া জলের পুরোটা খাওয়াও হয়নি। মেয়ের এভাবে চলে যাওয়াটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না মা। মেনে নিতে পারছেন না পরিবারের অন্য পরিজনেরাও।
 
সন্দেহের বসে এলাকার বাসিন্দারা বিমল সর্দার নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে মারধর করে। পরে পুলিসের কাছে নিজের দোষ স্বীকার করেন ওই ব্যক্তি। যদিও গোটা ঘটনা নিয়ে মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত মুখ খোলেনি নদিয়া পুলিস।



First Published: Wednesday, June 12, 2013 - 09:43
TAGS:


comments powered by Disqus