এবার গণধর্ষণ উত্তরবঙ্গের পর্যটনকেন্দ্রে

Last Updated: Tuesday, July 3, 2012 - 10:18

বেড়াতে গিয়ে ধর্ষিতা হলেন এক সদ্য বিবাহিতা মহিলা। সোমবার বিকেলে ঘটনাটি ঘটে আলিপুরদুয়ারের দক্ষিণ খয়েরবাড়ি টাইগার রেসকিউ সেন্টারে। মহিলার স্বামীকে মারধর করে মোবাইল ও টাকা পয়সা কেড়ে নেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। এই ঘটনায় ৫ জনের বিরুদ্ধে ফালাকাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। রাতেই দু`জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। বাকিদের খোঁজে তল্লাসি চলছে।
বিয়ের পর স্বামী কাজের সূত্রে বাইরে চলে গিয়েছিলেন। রবিবারই বাড়ি ফিরেছিলেন স্বামী। সোমবার সকালেই বেড়াতে বেড়িয়েছিলেন নব দম্পতি। ফালাকাটার বাড়ি থেকে মোটরবাইকে গিয়েছিলেন জলদাপাড়া জঙ্গল সংলগ্ন দক্ষিণ খয়েরবাড়ি টাইগার রেসকিউ সেন্টারে। সারাদিন কাটানোর পর বিকেলে ফেরার পথেই বিপত্তি। সেন্টারের সামনেই নব দম্পতিকে ঘিরে ধরে কয়েকজন স্থানীয় যুবক। স্বামীকে বেধরক মারধর শুরু করেন তাঁরা। কেড়ে নেওয়া হয় মোবাইল ও নগদ টাকা। তারপর ওই মহিলাকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। নারকীয় অত্যাচারের জেরে অচৈতন্য হয়ে পড়েন ওই নির্যাতিতা মহিলা।

রাতেই ফালাকাটা থানায় ৫ যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিসই মহিলাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। বীরপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে মহিলার প্রাথমিক চিকিত্‍সা করা হয়। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাসি শুরু করে পুলিস। আলিপুরদুয়ারের অতিরিক্ত পুলিস সুপার নিজে থানায় গিয়ে তদন্তের কাজ খতিয়ে দেখেন। ঘটনাস্থলের কাছ থেকে অন্যতম অভিযুক্ত বিপ্লব দাস ওরফে মানিককে গ্রেফতার করাহয়। তাঁর বাড়ি ফালাকাটার পাঁচমাইলে। তাঁকে জেরা করে বাকিদের সম্পর্কে খোঁজখবর নেয় পুলিস। গভীর রাতে ফালাটাকা স্টেশন থেকে অমল দাস নামে আরও এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। সে ট্রেনে করে পালানোর চেষ্টা করছিল বলে পুলিস সূত্রে খবর। ধৃতদের ফালাকাটা থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। অন্য দুষ্কৃতীদের খোঁজে রাতভর তল্লাসি চালায় পুলিস।



First Published: Tuesday, July 3, 2012 - 10:18


comments powered by Disqus