তাপমাত্রার সঙ্গেই বাড়ছে অস্বস্তিসূচক, গরমে নাজেহাল বাংলা

Last Updated: Tuesday, May 15, 2012 - 14:10

কলকাতায় আগামী ২৪ ঘণ্টায় তাপমাত্রা আরও বাড়ার পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দফতর। একইসঙ্গে বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণও বাড়বে। এর ফলে বাড়ছে অস্বস্তিসূচক। গতকাল আপেক্ষিক আর্দ্রতার সর্বোচ্চ পরিমাণ ছিল ৮৯ শতাংশ। কলকাতায় অস্বস্তিসূচক ছিল প্রায় ৬৯ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের থেকে ১৩ ডিগ্রি বেশি। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে উত্তরবঙ্গের কোনও কোনও জেলায় ঝড়বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। 
অন্যদিকে, প্রচণ্ড দাবদাহের পর অবশেষে স্বস্তির বৃষ্টি দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। সকাল থেকেই জেলার বিভিন্ন জায়গায় মেঘাচ্ছন্ন আকাশ। এরমধ্যেই কয়েকপশলা বৃষ্টিতে হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন জেলার মানুষ। তবে ইতিমধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে তাপপ্রবাহের সতর্কতা রয়েছে। প্রচণ্ড গরমে গত ১০ দিনে বর্ধমান জেলায় মৃত্যু হয়েছে তিন জনের। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বেশ কয়েকজন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে গরম। বর্ধমানে শিল্পাঞ্চল ও খনি এলাকায় কাজ করতে অসুবিধায় পড়ছেন শ্রমিকরা। পুরুলিয়ায় গতকালের তুলনায় আপেক্ষিক আর্দ্রতা কম থাকায় অস্বস্তিসূচক সামান্য হলেও কম। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তাপমাত্রা আরও বাড়বে বলে মনে করছে আবহাওয়া দফতর।

বাঁকুড়ায় আজ তাপমাত্রা ৪৪ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। জলস্তর নেমে যাওয়ায় জেলায় শুরু হয়েছে জলসঙ্কট। জলাভাবে সেচের ক্ষতি হওয়ায় নষ্ট হয়েছে ফসল। পশ্চিম মেদিনীপুরেও প্রচণ্ড গরমে অসুস্থ হয়েছেন বহু মানুষ। ঝাড়গ্রাম, বেলপাহাড়ি এলাকায় ব্যাহত হচ্ছে যৌথবাহিনীর অভিযান। শুরু হয়েছে জলসঙ্কট। এই অবস্থায় জলবাহিত রোগ শুরু হওয়ার আশঙ্কা করছেন ডাক্তাররা।  
অসহনীয় গরমে কাহিল উত্তরবঙ্গেরও বেশ কিছু অঞ্চল। মালদার ইংরেজবাজারে প্রচণ্ড গরমে মারা যান এক ট্রাফিক কনস্টেবল। আজ সকালে কাজ থেকে ফেরার পথে সানস্ট্রোকে মৃত্যু হয় ক্ষিতীশ মণ্ডলের । মালদা ও দুই দিনাজপুরে আপাতত তাপপ্রবাহ চলবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর । এই তিন জেলাতেই তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির বেশি হবে বলে জানানো হয়েছে । কোচবিহার, ও জলপাইগুড়িতে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। তবে এই বৃষ্টিতে তাপমাত্রার খুব একটা হেরফের হবেনা বলেই মনে করা হচ্ছে। বরং আপেক্ষিক আর্দ্রতা বেশি থাকায় অস্বস্তি বজায় থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর ।   



First Published: Tuesday, May 15, 2012 - 17:04


comments powered by Disqus