শিলিগুড়ি পার্টি অফিস থেকে ধৃতদের জামিন দিল আদালত

Last Updated: Thursday, April 18, 2013 - 16:11

শিলিগুড়িতে গ্রেফতার হওয়া ৫১ জন বাম সমর্থক কর্মীদের সকলেই জামিন পেলেন আজ। তাঁদের বিরুদ্ধে রুজু করা ৪টি মামলার প্রত্যেকটির জন্য ৫০০ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে তাঁদের জামিন মঞ্জুর করে আদালত। কোনও শর্ত ছাড়াই জামিন দেওইয়া হয় তাঁদের। একই সঙ্গে এই মামলায় পুলিসের ভূমিকায় বেশ কিছু অনিয়ম নিয়েও সমালোচনা করেন বিচারক।
এদিন আদালতে ধৃতদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বেশ কয়েকটির অভিযোগের প্রমাণ পেশ করতে পারেনি পুলিস। ঘটনার দিন, অর্থাৎ ১১ এপ্রিল যাঁদের আঘাতের অভিযোগ আনা হয় ধৃতদের বিরুদ্ধে, সেই মুন্না সিং, অভিজিৎ ঘোষের মেডিক্যাল রিপোর্ট জমা দিতে পারেনি পুলিস। ধৃতদের বিরুদ্ধে আনা ৩০৭ ধারার অর্থাৎ খুনের চেষ্টার অভিযোগও প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয় পুলিস।
অভিযুক্তদের পক্ষের আইনজীবীরা পুলিসের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ আনেন।
আদালত আজ ধৃতদের জামিন দেওয়ার পর প্রাক্তন মন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্য টেলিফোনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বলেন সত্য উদ্ঘাটিত হওয়ায় তিনি খুশি এবং সন্তুষ্ট। তাঁর অভিযোগ, "পুলিসকে নগ্নভাবে ব্যবহার করেছে শাসকদল।"
আজ ধৃত ৫১ জনকে আদালতে ফের পেশ করা হয়। গত ১১ এপ্রিল, পুলিস শুধুমাত্র তাদের স্বতঃপ্রণোদিত করা মামলাটিতেই ৫১ জনকে আদালতে পেশ করে। পরদিন অর্থাত্‍ ১২ তারিখ যখন কেস ডায়েরি আদালতে পাঠানো হয় তখন বাকি তিনটি মামলায় এই ৫১ জনকে ফের গ্রেফতার দেখানোর আবেদন জানানো হয়।
পুলিসের মূল অভিযোগের সঙ্গে আরও তিনটি মামলা যুক্ত করায় বিতর্ক দেখা দিয়েছে। আজ আদালতে ৪৬ জনের জামিনের আবেদন জানানো হয় সিপিআইএমের পক্ষ থেকে। গ্রেফতার হওয়া ৫১ জনের মধ্যে পাঁচজন মহিলা আগেই জামিনে মুক্তি পেয়েছেন। তিনটি মামলা যুক্ত হলে জামিনে মুক্ত হওয়া মহিলারা হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছেন।
মামলার শুনানি ঘিরে শিলিগুড়ি আদালতে ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে।



First Published: Thursday, April 18, 2013 - 16:31


comments powered by Disqus