হলদিয়ার জনসভায় ক্রাইসিস ম্যানেজারের ভূমিকায় শুভেন্দু

Last Updated: Friday, November 2, 2012 - 21:41

এবিজি রাজ্য ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিলেও, ছাঁটাই হওয়া কর্মীদের কাজে ফেরানোর দাবিতে অনড় সাংসদ শুভেন্দু অধিকারী। আজ হলদিয়ায় একটি সমাবেশে তিনি বলেন, কোন সংস্থা কীভাবে কাজ করবে, তা নিয়ে তাঁর মতো জনপ্রতিনিধির কোনও মাথাব্যথা নেই। কিন্তু কর্মী ছাঁটাই হলে তিনি যে প্রতিবাদ আন্দোলন চালিয়ে যাবেন, তা পরিষ্কার করে দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ। এদিন শুভেন্দু বলেন, "গ্লোবাল টেন্ডার করে এই সংস্থা এসেছে, আমাদের কোনও আপত্তি নেই।" তিনি দাবি জানান, "ছাঁটাই হওয়া কর্মীদের নিয়ে কাল থেকেই মোট ৬৩০ জন কর্মী কাজে যোগ দিক।"
পাশাপাশি, সিপিআইএমকেও একহাত নিয়েছেন তিনি। সিপিআইএম নেতা লক্ষণ শেঠের সঙ্গে চুক্তি করে এবিজি সংস্থার আধিকারিকরা কাজ করছেন বলে অভিযোগ করেছেন তৃণমূল নেতা। এবিজি-র কর্মী নিয়োগেও পক্ষপাতিত্ব করা হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।
হলদিয়া বন্দরের কাজকর্ম ১০০ শতাংশ স্বাভাবিক রয়েছে। সভামঞ্চ থেকে তৃণমূল সাংসদ শুভেন্দু অধিকারী আজ ফের এই দাবি তলেন। তাঁর অভিযোগ, রাজনৈতিক স্বার্থেই হলদিয়া বন্দর নিয়ে অপপ্রচার চলছে। তিনি বলেন, "বন্দর ব্যবহারকারী সংস্থাগুলির কাছে এবিজি-র চলে যাওয়া নিয়ে কোনও বিজ্ঞপ্তি যায়নি। বন্দরের দশটির বেশি বার্থ স্বাভাবিক রয়েছে।"
হলদিয়া বন্দর ইস্যুতে রেলপ্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরীর কড়া সমালোচনা করতেও ছাড়েননি তৃণমূল সাংসদ। আজ রেলপ্রতিমন্ত্রীর নাম না করে তাঁকে `খুনের মামলার আসামী` বলে কটাক্ষ করেন তিনি। হলদিয়া বন্দরের অচলাবস্থায় তৃণমূল কংগ্রেসের সমালোচনা করার জন্য, কংগ্রেস নেতা নির্বেদ রায়কে চরম আক্রমণ শানান শুভেন্দু। এমনকি কয়েকজন কংগ্রেস নেতার চরিত্র নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।



First Published: Friday, November 2, 2012 - 21:41


comments powered by Disqus