আদালতে সুদীপ্ত-বিক্ষোভ-লাঠিচার্জ

Last Updated: Sunday, May 19, 2013 - 18:06

সুদীপ্ত সেনকে ঘিরে বিক্ষোভ ঠেকাতে লাঠি চালাল পুলিস। পুলিসের লাঠিতে মাথা ফাটল এক এজেন্টের। আজ সুদীপ্ত সেনকে নিয়ে বারুইপুর আদালত থেকে বেরোনর সময় এই ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
রবিবার সকাল থেকেই বারুইপুর আদালতের বাইরে ছিল চূড়ান্ত উত্তেজনা। দফায় দফায় আদালত চত্বরের বাইরে বিক্ষোভ দেখান এজেন্ট, আমানতকারী এবং রাজনৈতিক দলের কর্মীরা। নির্দিষ্ট সময়ে সুদীপ্ত সেনকে নিয়ে পৌঁছয় পুলিসের গাড়ি। উত্তেজনা আরও বাড়ে। আদালতে ঢোকানোর সময়  গেট আটকিয়ে কোনওমতে বিক্ষোভ ঠেকায় পুলিস। কিন্তু বেরনোর সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়নি। সুদীপ্ত সেনের জন্য জুতোর মালা, ঝাঁটা, ইট, লাঠি নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন বিক্ষোভকারীরা। অবস্থা বুঝে কোর্ট লক আপের পিছনের দরজা দিয়ে সুদীপ্ত সেনকে বের করে নিয়ে যায় পুলিস। এরপরই অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। র‍্যাফ এবং জেলা পুলিস কর্তাদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন এজেন্ট এবং আমানতকারীরা। তাদের হঠাতে লাঠি চালায় পুলিস।
 
মুহূর্তের মধ্যে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় আদালত চত্বর এবং বারুইপুর স্টেশন সংলগ্ন এলাকা। র‍্যাফ-এর লাঠির ঘায়ে মাথা ফাটে এক এজেন্টের। ঘটনার জেরে কিছুক্ষণের জন্য যান চলাচল স্তব্ধ হয়ে যায়। আতঙ্কে বন্ধ হয়ে যায় দোকানপাট। লাঠিচার্জের সময় পুলিস পথচলতি মানুষকেও রেহাই দেয়নি বলে অভিযোগ।



First Published: Sunday, May 19, 2013 - 18:06


comments powered by Disqus