কোচিং থেকে ফেরার পথে তুলে নিয়ে গিয়ে শ্লীলতাহানি শিক্ষিকার

কোচিং থেকে ফেরার পথে তুলে নিয়ে গিয়ে এক শিক্ষিকার শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। ঘটনায় অভিযুক্ত তিন যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার উস্তি থানা এলাকায়।

Updated: Jan 30, 2014, 10:36 PM IST

কোচিং থেকে ফেরার পথে তুলে নিয়ে গিয়ে এক শিক্ষিকার শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। ঘটনায় অভিযুক্ত তিন যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার উস্তি থানা এলাকায়।

বুধবার দুপুরে সংগ্রামপুর এলাকার কোচিংয়ে পড়িয়ে অটোতে বাড়ি ফিরছিলেন ওই শিক্ষিকা। শিক্ষিকার অভিযোগ, অটোর যাত্রী তিন যুবক রাসায়নিক স্প্রে করে সংজ্ঞাহীন করে ফেলে তঁকে। নিয়ে যাওয়া হয় ডায়মন্ড হারবারের পারুল এলাকায়। সেখানে ঝোপের মধ্যে হাত-পা বেঁধে তাঁর শ্লীলতাহানি করা হয় বলে অভিযোগ। পরে মাথায় ব্যাগ চাপা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয় পাশের পুকুরে। শিক্ষিকা জানিয়েছেন, কোনওক্রমে পুকুর থেকে উঠে ভ্যান রিকশায় চেপে ডায়মন্ড হারবার বাজারে পৌছন তিনি। সেখানেই সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন। স্থানীয় লোকজন তাঁর বাড়িতে ফোন করলে তাঁরা এসে রাতেই উস্তি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। আজ মেডিক্যাল টেস্টের জন্য মহিলাকে নিয়ে যাওয়া হয় ডায়মন্ড হারবার হাসপাতালে। সেখানে হাজির ছিলেন পুলিসের আধিকারিকেরা। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন দুজনকে আটক করেছে পুলিস।