বীরভূমে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বর বলি এক

Last Updated: Monday, September 16, 2013 - 10:11

ফের বীরভূমের খয়রাশোলে তৃণমূল খুন। এবারও খুনের পিছনে উঠে আসছে গোষ্ঠীদ্বন্দই। রবিবার বড়ঢ়া গ্রামে তৃণমূল নেতা মনোজ শেখ খুনে নাম জড়িয়েছে তৃণমূলের আরেক নেতা এনামূল শেখের। পঞ্চায়েতের সময় অনেকটাই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। তবে গত ১২ আগস্ট বীরভূম জেলা তৃণমূলের নেতা অশোক ঘোষ খুনের পর প্রকাশ্যে চলে এল বীরভূম তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব এতটাই তীব্র যে তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়ে পালিয়ে বাঁচতে হয় জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে।
 
আবারও সেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বই প্রকাশ্যে চলে এল। মাস ঘুরতে না ঘুরতেই ফের খুন খয়রাশোলে।
রবিবার খয়রাশোলের বড়ঢ়া গ্রামে তৃণমূল নেতা মনোজ শেখকে গুলি করে খুন করে ১০-১২ জন দুষ্কৃতী। স্থানীয় তৃণমূল নেতা এনামূল শেখের নেতৃত্বেই এই খুন বলে অভিযোগ উঠছে।  
 
বর্ধমানের পূর্বস্থলিতে রক্ত ঝড়ল স্কুল পরিচালন সমিতির ভোটে। কাষ্ঠশালি নিভারানী উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোট দিয়ে ফেরার পথে খুন হলেন কাদের শেখ নামে এক ব্যক্তি। পাঁচ জন দুষ্কৃতী কাদের শেখকে পরপর চারটি গুলি করে। বাধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন কাদের শেখের স্ত্রীও। এই খুনের পিছনে স্থানীয় বিধায়ক তপন চট্টোপাধ্যায়ের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ কাদের শেখের পরিবারের। দু`দিন আগেই জামিন পান কাদের শেখ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস।
 



First Published: Monday, September 16, 2013 - 21:55
TAGS:


comments powered by Disqus