অশোক ঘোষ হত্যা কাণ্ড: অনুব্রতকে ক্লিনচিট দিল তৃণমূল

Last Updated: Friday, August 16, 2013 - 09:22

চবিবশ ঘণ্টার খবরে সিলমোহর। বীরভূমের তৃণমূল নেতা অশোক ঘোষ হত্যাকাণ্ডে অনুব্রত মণ্ডলকে ক্লিনচিট দিল দলের শীর্ষনেতৃত্ব। আর তা স্বীকার করে নিলেন তৃণমূলেরই বীরভূম জেলায় অনুব্রত মণ্ডলের বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা ও বিধায়ক স্বপন ঘোষ।
দলের অনুরোধেই নিহত অশোক ঘোষের পরিবার পুলিসের কাছে অনুব্রতর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেনি বলেও স্বীকার করে নিয়েছেন ওই বিধায়ক।
বাবার খুনের জন্য দলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল ও ব্লক সভাপতি অশোক মুখার্জিকেই কাঠগড়ায় তুলেছিলেন নিহত তৃণমূল নেতার ছেলে।
মঙ্গলবার রাতে এফআইআর দায়ের হয়। কিন্তু সেখানে নাম নেই অনুব্রত মণ্ডলের।
 
শীর্ষ নেতৃত্বের অনুরোধেই যে অনুব্রত মণ্ডলের নাম এফআইআর থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে তা নিহতের ছেলের কথা থেকেই স্পষ্ট। আর দল যে অনুব্রত মণ্ডলের পাশেই, তা স্পষ্ট করে দিলেন সিউড়ির তৃণমূল বিধায়ক। 
 
জেলায় অনুব্রত মণ্ডলের চরম বিরোধী বলে পরিচিত বিধায়ক স্বপন ঘোষের এই বক্তব্য বেশকিছু  প্রশ্ন তুলে দিয়েছে।
অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা না নিয়ে দল কেন আগবাড়িয়ে তদন্ত করতে গেল? 
 
অশোক ঘোষের খুনে অভিযুক্তদের শাস্তি দেওয়ার থেকেও তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে এখন গুরুত্বপূর্ণ অনুব্রত মণ্ডলকে আশ্রয় দেওয়া?
 
অনুব্রত মণ্ডলের ঘোরতর বিরোধী স্বপন ঘোষ হঠাত্ কেন ক্লিনচিট দিলেন অনুব্রতকে?
 
পঞ্চায়েত ভোটের আগে থেকেই অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে বারবার একাধিক অভিযোগ উঠেছে। এফআইআর দায়ের হয়েছে। তবে গ্রেফতার করার সাহস দেখায়নি পুলিস। বিধানসভায় দাঁড়িয়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রী ক্লিনচিট দিয়েছেন জেলা সভাপতিকেই। কিন্তু এবার আর বিরোধী দলের নয়, খোদ দলের কর্মী খুন হয়েছেন। তার পরেও শীর্ষ নেতৃত্ব আড়াল করছে অনুব্রত মণ্ডলকে। নিহতের পরিবার কিন্তু এখনও ভরসা রাখছেন মুখ্যমন্ত্রীর ওপর।



First Published: Friday, August 16, 2013 - 09:22


comments powered by Disqus