`মমতাহীন` টুম্পার প্রশ্ন আর কিছু অবাক জবাব....

Last Updated: Monday, June 17, 2013 - 18:06

কামদুনিতে আজ যা ঘটল তা নিয়ে অনায়াসে একটা ঘটনাক্রম লিখে ফেলা যায়। মুখ্যমন্ত্রীর মাত্র পাঁচ মিনিটের সফর জন্ম দিয়ে গেল অনেক প্রশ্নের। মুখ্যমন্ত্রী গাড়িতে উঠতে যাবেন তখন গ্রামেরই এক মহিলা প্রশ্ন তুললেন নিরাপত্তা নিয়ে। এরপরেই শুরু কথাকাটাকাটি। বিচার আর শাস্তি চেয়ে সাধারণ এক গ্রামবাসী মহিলা মুখ্যমন্ত্রীকে যা বললেন তা নিয়েই এই প্রতিবেদন।
মমতা: শুনে নিয়েছি। আমি সব বলে দিয়েছি।
মহিলা (টুম্পা কয়াল): না, না...
মমতা: এই আপনি বেশি কথা বলবেন না। অনেক হয়েছে। কোনও রাজনীতি করবেন না।
মহিলা: চিৎকার করলেই সব সমাধান হয় না।
মমতা: সিপিএমের রাজনীতি করবে... চুপ করুন রাজনীতি করবেন না। আই অ্যাম সরি টু সে, এই গুণ্ডাগুলো, যারা ধরা পড়েছে তারা সিপিএমএ এর সাপোর্টে ছিল এরা। আই অ্যাম সরি আমি আপনাদের বলতাম না।
(মুখ্যমন্ত্রী ও মহিলার তর্ক দেখতে ক্লিক করুন এখানে)
কিন্তু কে এই মহিলা? প্রতিবাদ জানালেন মুখ্যমন্ত্রীকে। মুখ্যমন্ত্রীর রাজনৈতিক মন্তব্যের পাল্টা জবাব দেওয়ার সাহস রাখেন এমন এক মহিলা। কিছুক্ষণের মধ্যেই দেখা হল তাঁর সঙ্গে। ২৪ ঘণ্টার মুখোমুখি টুম্পা কয়াল...
২৪ ঘণ্টা: মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে পারলেন?
টুম্পা: না। আমি যখন বলি দিদির সঙ্গে আমার কিছু কথা আছে, গার্ড বলে, ঠিক আছে তুমি কথা বলবে। দিদি বেরোতেই আমি বলি, দিদি আপনার সঙ্গে আমার কিছু কথা আছে। তাতে উনি হাত জোড় করে বলে। "আমার সব শোনা হয়ে গেছে।"
এটা তো মহিলাদের ঘটনা। তা হলে আমাদের সঙ্গে তো কথা বলা প্রয়োজন। তাতে উনি বলেন, "তুমি সব বুঝে গেছ?" বড় বড় চোখ করে বলেন... আমি বলি, আপনি কি সব বুঝে গেছেন।
দিদি আমাদের গ্রামে মুখ দেখাতে এসেছিল? আমাদের কথাই যদি না শুনল তালে দিদি কিসের জন্য এসেছিল?
২৪ ঘণ্টা: কেন শোনেননি? আপনারা কি সিপিআইএম?
টুম্পা (ক্যামেরা দেখে জড়ো হওয়া সব মহিলারা একসাথে বলেন): না। এখানে পার্টি নেই। এর মধ্যে পার্টি কথা থেকে আসছে!
২৪ ঘণ্টা: আপনাকে তো চোপ বলে...
টুম্পা: হ্যাঁ। উনি বলেছেন। "তুমি কি বেশি বুঝে গেছ?" তাহলে দিদি কি বেশি বুঝে গেছেন?
২৪ ঘণ্টা: আপনাদের তো দাবি ছিল, মুখ্যমন্ত্রী গ্রামে আসুন। উনি এলেন। আপনারা কি খুশি?
টুম্পা: না। আমাদের কথা শুনলে খুশি হতাম। উনি আমাদের কথা শনার প্রয়োজন মনে করেছেন কি? উনি তো শুধু একটু মুখ দেখিয়ে চলে গেলেন।
(টুম্পার সাক্ষাৎকার দেখতে ক্লিক করুন এখানে)
------------
বারাসতে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুন করার ঠিক ১০ দিন পর কামদুনিতে ছাত্রীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রথম থেকেই তদন্ত ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে অনড় থেকেছে গোটা কামদুনি। মেয়েটির বাড়ির লোকের সঙ্গে দেখা করে ফিরছিলেন মমতা। ভিড় ঠেলে কোনও মতে মুখ্যমন্ত্রীকে গাড়ি পর্যন্ত নিয়ে যান তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা।



First Published: Monday, June 17, 2013 - 18:06


comments powered by Disqus