তীব্র প্রতিক্রিয়া ভারাভারা রাও, মহাশ্বেতা দেবীর

Last Updated: Tuesday, October 18, 2011 - 23:06

মঙ্গলবার মহাকরণে মাওবাদী সমস্যা নিয়ে মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে সরকারের বৈঠক হয়। মাওবাদীদের সঙ্গে শান্তি প্রক্রিয়ার আড়ালে যৌথ অভিযানের জন্য বাড়তি সময় নিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মাওবাদীদের সঙ্গে শান্তি প্রক্রিয়া প্রসঙ্গে আজ এমনই তীব্র প্রতিক্রিয়া অন্ধ্রের কবি ভারাভারা রাওয়ের। নির্বাচনের আগে পর্যন্তও যাঁরা বিভিন্ন বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রকাশ্যে সমর্থন করতেন এখন তাঁরাই মুখ্যমন্ত্রীর সমালোচনায় সুর চড়া করছেন। মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে সাহিত্যিক মহাশ্বেতা দেবী স্পষ্ট জানালেন, জঙ্গলমহল থেকে যৌথবাহিনী প্রত্যাহার করে আলোচনা চালানোর দায়িত্ব রাজ্য সরকারেরই। মুখ্যমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করেছেন অন্ধ্রের কবি ভারাভারা রাও। চব্বিশ ঘণ্টাকে ফোনে তিনি জানান, জঙ্গলমহলে সন্ত্রাস চালাচ্ছে রাজ্য সরকার। মাওবাদীরা সেই সন্ত্রাসেরই মোকাবিলা করছে।
মাওবাদী প্রশ্নে সরকারের সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরেই বিশিষ্টজনেদের দূরত্ব বাড়ছিল। এবার যৌথবাহিনীকে সামনে রেখে জঙ্গলমহলের মানুষকে কীসের শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে
সেই প্রশ্নও তুলেছেন মহাশ্বেতা দেবী।

" আজও জঙ্গলমহলে অভিযান চালিয়েছে যৌথবাহিনী। এই সময় শান্তি প্রক্রিয়া চালু করা সম্ভব নয়। উনি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) তো সময় কিনছেন রাস্ট্রীয় সন্ত্রাস জোরদার করার জন্য। মাওবাদীরা হিংসা ছড়াচ্ছে না, হিংসা ছড়াচ্ছে সরকার, মাওবাদীরা সেই হিংসা প্রতিরোধ করছে। মাওবাদীরাও নয়, ওই অঞ্চলের আদিবাসীরা প্রতিহত করছেন, মাওবাদীরা তাদের সাহায্য করছে। ওখানে ভৈরবসেনা তৈরি হয়েছে। যৌথবাহিনীর সঙ্গে একযোগে অত্যাচার চালাচ্ছে জঙ্গলমহলে।" --- ভারাভারা রাও।

"জঙ্গলমহল সম্পর্কে একটা কমিটি গঠিত হয়েছে। সুজাত ভদ্র আছেন, আর কে কে আছেন সব নাম আমার মনে পড়ছে না। কমিটি যখন গঠিত হয়েছে তারা কি করবেন, সেই আলোচনার যে সময়টা, ততটা ধৈর্য আমাদের রাখতে হবে বলে আমার মনে হয়। তবে যৌথবাহিনী প্রত্যাহার করাই উচিত্‍। জঙ্গলমহলের মানুষ এমন কী করেছে যে যৌথবাহিনী দিয়ে তাদের শিক্ষা দিতে হবে? --- মহাশ্বেতা দেবী।



First Published: Wednesday, October 19, 2011 - 17:36


comments powered by Disqus