প্রথম দফা: সত্তর শতাংশ বুথে ভোট কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই

আইনি লড়াইয়ে হেরেও কৌশলে কমিশনকে হারিয়ে দিল সরকার আর শাসক দল। পঞ্চায়েত ভোটের প্রথম পর্বে সত্তর শতাংশ বুথে ভোট হল কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই। কমিশনও বলল, ভোট হয়েছে শান্তিতে।

Updated: Jul 11, 2013, 09:36 PM IST

আইনি লড়াইয়ে হেরেও কৌশলে কমিশনকে হারিয়ে দিল সরকার আর শাসক দল। পঞ্চায়েত ভোটের প্রথম পর্বে সত্তর শতাংশ বুথে ভোট হল কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই। কমিশনও বলল, ভোট হয়েছে শান্তিতে।
সত্তর শতাংশ বুথে ভোট হল কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই। আইন ছিল, নিয়ম ছিল, ব্যবস্থা ছিল। তার ফাঁক গলে প্রথম দফা দৃষ্টান্ত হয়ে রইল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নিয়ম, কোথাও চার জনের কম কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন করা যায় না। অনেক টানাপোড়েনের পরে শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে কমিশনের কথাটাই মানতে হয় সরকারকে। কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করে ভোটেই রাজি হতে হয়। কাজে লাগানো হল, সেই নিয়মকেই। ভোটে প্রতি বুথে দুজন করে সশস্ত্র রক্ষী নিয়োগের কথা। কিন্তু একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে একটি মাত্র বুথ থাকায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান মোতায়েন করা গেল না।  
বাঁকুড়ায় ২৫৫২টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ২১০৬টিতে একটি মাত্র বুথ ছিল।
পুরুলিয়ায় ১৯২২টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের মধ্যে ১৫৭৬টিতে ছিল একটি মাত্র বুথ। 
পশ্চিম মেদিনীপুরে ৪১৯৭টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের মধ্যে ৩৬৬০টিতে একটি মাত্র বুথ ছিল। ফলে ওই সব বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী ছিল না।
সব মিলিয়ে ১০,০৩৮টি বুথের মধ্যে ৭৩৪২টিতেই ভোট হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়াই।
কমিশন চেষ্টা করলেও ব্যর্থ বয়েছে। কোনও উদ্যোগ নেয়নি পুলিস প্রশাসন। কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকার সুযোগে বুথ দখল, বুথ থেকে বিরোধী দলের প্রার্থী বা পোলিং এজেন্টকে বের করে দেওয়া কিংবা মারধর-এসবেরই সাক্ষী রইল পঞ্চায়েত ভোটের প্রথম পর্ব।