সন্ত্রাসের আবহেই কাল শুরু পঞ্চায়েত ভোট

Last Updated: Wednesday, July 10, 2013 - 10:08

সন্ত্রাসের আবহেই কাল, বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে পঞ্চায়েত নির্বাচন। দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষে সব প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে প্রথম দফার পঞ্চায়েত নির্বাচন এসে গেল। কাল প্রথম দফায় ভোট জঙ্গলমহলের তিন জেলা পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুরে।
ভোটপ্রচারের শেষ বেলাতেও সন্ত্রাসের ছবি জঙ্গলমহলের জেলাগুলিতে। রাজ্যের অন্যান্য অংশেও পঞ্চায়েত ভোট ঘিরে সন্ত্রাস অব্যাহত। মুর্শিদাবাদের পিঁপড়েখালিতে আরএসপি কর্মীর মৃত্যুতে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। নদিয়ার চাপড়ায় বোমাবাজিতে মারা গিয়েছেন এক তৃণমূল কর্মী।  
আরএসপি কর্মী আবদুল মজিদ শেখের মৃত্যুকে ঘিরে মঙ্গলবার উত্তেজনা ছড়ায় মুর্শিদাবাদের পিঁপড়েখালিতে।  
 
নদিয়ার চাপড়া থানার হাতিশালা গ্রামে রাজনৈতিক সংঘর্ষে মৃত্যু হয় মিঠু ঘোষ নামে এক তৃণমূল কর্মীর।
সিপিআইএমের পতাকা ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় নদিয়ার শান্তিপুরের বাবলা গ্রাম পঞ্চায়েতে। তৃণমূলের সমর্থকদের সঙ্গে সংঘর্যে গুরুতর আহত হন দুই বাম প্রার্থী।
আসানসোলের জামুড়িয়ার সিদ্ধপুর-বাঘড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে  এক নির্দল প্রার্থীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। আহত প্রার্থী বাহাদুরপুর স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি।
 
বর্ধমানের গলসি থানার তাহেরপুরে দুষ্কৃতীদের বোমায় আহত হন এক সিপিআইএম সমর্থক। তাপস প্রামাণিক নামে ওই ব্যক্তি বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।
 
হাওড়ার বাঁকড়ায় সিপিআইএমের সভায় বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।
 
দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার পাথর প্রতিমা থানার পূর্ব সুরেন্দ্রনগর গ্রামে সিপিআইএম প্রার্থী তীরা মণ্ডলের স্বামীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।
 
পূর্ব মেদিনীপুরের ভগবানপুরের বংশীধরপুর গ্রামে  সিপিআইএম প্রার্থী কাজল বারুইয়ের বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মারধর করা হয় প্রার্থী ও তাঁর স্বামীকে।
 
পশ্চিম মেদিনীপুর গড়বেতায় দলীয় কার্যালয়ে যাওয়ার অপরাধে লক্ষ্মী রুইদাস নামে এক সিপিআইএম কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।
 
পশ্চিম মেদিনীপুরের শবং থানার পানপাড়া গ্রামে সিপিআইএম কর্মী সমর্থকদের বাড়িতে হামলার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বাইক বাহিনীর বিরুদ্ধে। 
 
পশ্চিম মেদিনীপুরের ঝাড়গ্রামের পরিহাটিতে  সিপিআইএম কার্যালয়ে ভাঙচুর চালানো হয়। ভাঙচুর চালানো হয় স্থানীয় একটি তৃণমূল কার্যালয়েও। দুপক্ষই পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে।
মালদার গাজলের  দেহাজ্জি গ্রামের  তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের বাড়ির বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে।
 হুগলির গোঘাটের রতনপুরে আক্রান্ত হন সিপিআইএম কর্মী গনেশ রায়। তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে গেলে গনেশ রায় ও পঞ্চায়েত সমিতি প্রার্থী পঙ্কজ রায়কে গ্রেফতার করে পুলিস।
 কোচবিহারের তুফানগঞ্জের নাটাবাড়িতে দুই নির্দল প্রার্থীর উপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। যদিও তৃণমূল অভিযোগ অস্বীকার করেছে।
 
ভোটারদের মধ্যে টাকা বিলি করার অভিযোগে পুরুলিয়ার বরাবাজার থানার ফতেপুরে এক প্রধান শিক্ষককে আটক করেছে পুলিস। মাখন মাহাত নামে ওই ব্যক্তি সিপিআইএম কর্মী। তৃণমূল কর্মীরা মদ্যপ অবস্থায় তাঁকে মারধর করেছে বলে পাল্টা অভিযোগ করেন ওই শিক্ষক।



First Published: Wednesday, July 10, 2013 - 10:08


comments powered by Disqus