জ্বর হয়েছে? ডেঙ্গি কিনা বুঝবেন কী করে, জেনে নিন

চিনে নেওয়া যাক, ডেঙ্গির প্রধান কয়েকটি উপসর্গ আর ব্যবস্থা নিন আগেভাগেই...

Updated By: Nov 11, 2019, 01:06 PM IST
জ্বর হয়েছে? ডেঙ্গি কিনা বুঝবেন কী করে, জেনে নিন
—প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় আতঙ্ক বাড়াচ্ছে ডেঙ্গি। একাধিক এলাকায় লাফিয়ে বাড়ছে ডেঙ্গির প্রকোপ। গত দু’দিনের বৃষ্টিতে সমস্যা আরও বেড়ে গিয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় জল জমে ডেঙ্গির মশার আঁতুড়ঘর তৈরি হবার সম্ভাবনা ফের প্রকট হয়েছে। শীত পড়লে ডেঙ্গির প্রভাব অনেকটা কমে যায় ঠিকই, কিন্তু এই অকাল বৃষ্টিতে এখনই জাঁকিয়ে শীত পড়ারও সম্ভাবনা খুবই কম।

অক্টোবর থেকেই ফের মাথা চাড়া দিয়েছে ডেঙ্গির আতঙ্ক। সম্প্রতি হাওড়ার শিবপুর, কলকাতার শ্রীভূমি আর বাগুইআটিতে ডেঙ্গির কারণে তিন জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। পরিসংখ্যান বলছে, বিশ্বে প্রতি বছর ১০ কোটির বেশি মানুষ ডেঙ্গিতে আক্রান্ত হন আর প্রায় ১০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয় এই রোগে। প্রধানত এডিস ইজিপ্টাই মশাবাহিত এই রোগের প্রাথমিক উপসর্গই হল জ্বর। অর্থাৎ, এডিস ইজিপ্টাই প্রজাতির মশার কামড় থেকেই এক জনের থেকে অন্য জনের শরীরে প্রবেশ করে ডেঙ্গি জীবাণু।

বর্তমানে আবহাওয়ার পরিস্থিতির কারণে অনেকের মনেই এখন একটা আতঙ্ক দানা বাঁধতে শুরু করেছে, এই জ্বর কি ঠান্ডা-গরমের ‘ভাইরাল ফিভার’, নাকি ডেঙ্গি! তাই আতঙ্কিত হওয়াটাই স্বাভাবিক। এছাড়াও ইদানীং অনেক সময়ই ডেঙ্গি আক্রান্তের ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, জ্বরে শরীরের তাপমাত্রা সে ভাবে বাড়ছে না। এ দিকে তাপমাত্রা তেমন ভাবে না বাড়লেও, কমে যাচ্ছে প্লেটলেট কাউন্ট! তাই আগে চিনে নেওয়া যাক, ডেঙ্গির কয়েকটি লক্ষণ...

আরও পড়ুন: যৌন সংসর্গের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে ডেঙ্গি! চাঞ্চল্যকর প্রমাণ মিলল গবেষণায়

Dengue

ডেঙ্গির প্রধান কয়েকটি উপসর্গ:

১) ডেঙ্গির জ্বরে গলায় ব্যথা, জ্বালা আর সঙ্গে সর্দির সমস্যা থাকতে পারে।

২) সাধারণ ভাইরাল ফিভারের মতো ডেঙ্গি হলেও গা-হাত-পায়ে মারাত্মক যন্ত্রণা করে সঙ্গে মাথা ব্যথাও হতে থাকে।

৩) ডেঙ্গির জ্বরে শরীরে ব্যথা-বেদনার সঙ্গে সঙ্গে অনেকের চোখেও মারাত্মক ব্যথা করতে পারে।

৪) ডেঙ্গির জ্বরে অনেকের গা-হাত-পায়ে মারাত্মক ব্যথা হতে থাকে। এই জন্যই ডেঙ্গি জ্বরের আর এক নাম ‘ব্রেক বোন ফিভার’।

৫) ডেঙ্গির জ্বরের আর একটি উপসর্গ হল মারাত্মক পেটে ব্যথা আর গা বমি বমি ভাব বা বমি হওয়া। এর সঙ্গে পেট খারাপও হতে পারে।

৬) ডেঙ্গির জ্বরে রক্তে অনুচক্রিকা বা প্লেটলেট কাউন্ট দ্রুত কমে যেতে শুরু করে।

৭) ডেঙ্গির জ্বরে শরীরের বিভিন্ন অংশ থেকে রক্তক্ষরণ হতে পারে।

৮) ডেঙ্গি হলে সারা গায়ে, ত্বকের উপর লালচে র‍্যাশ দেখা দেয়।

৯) ডেঙ্গির জ্বরে নাক, মাড়ি বা প্রস্রাবের সঙ্গে রক্তক্ষরণ হতে পারে।

সাধারণ ভাইরাল ফিভারের সঙ্গে ডেঙ্গি জ্বরের বিশেষ একটা ফারাক না থাকলেও ইদানীং যেহেতু এই জ্বরের প্রকোপ বেড়েছে তাই জ্বর ৪৮ ঘন্টা পেরলেই কোনও ঝুঁকি না নিয়ে চিকিত্সকের কাছে যান। চিকিত্সকের পরামর্শ মেনে প্রয়োজনে রক্ত পরীক্ষা করিয়ে নিন। মনে রাখবেন, চিকিতসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও ওষুধ খাওয়া চলবে না। প্রয়োজনে চিকিত্সকের পরামর্শ মেনে প্লেটলেট কাউন্ট পরীক্ষা করিয়ে নিন। সতর্ক থাকুন, সুস্থ থাকুন।