close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

দেশ বাঁচাতে একজোট হতে হবে বিরোধীদের, বৈঠকের পর এক সুরে মমতা-চন্দ্রবাবু

দেশ বাঁচাতে বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হতে হবে। নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকের পর এমনটাই দাবি করলেন চন্দ্রবাবু নাইডু। অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর সুরেই মমতা বলেন, দেশকে বাঁচাতে বিজেপির বিরুদ্ধে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। 

Updated: Nov 19, 2018, 06:33 PM IST
দেশ বাঁচাতে একজোট হতে হবে বিরোধীদের, বৈঠকের পর এক সুরে মমতা-চন্দ্রবাবু

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশ বাঁচাতে বিজেপির বিরুদ্ধে একজোট হতে হবে। নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকের পর এমনটাই দাবি করলেন চন্দ্রবাবু নাইডু। অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর সুরেই মমতা বলেন, দেশকে বাঁচাতে বিজেপির বিরুদ্ধে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। 

সোমবার নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠক করেন চন্দ্রবাবু নাইডু। বৈঠক শেষে অন্ধ্রপ্রদেশেরব মুখ্যমন্ত্রী বলেন,''মমতার সঙ্গে দেখা করতে এখানে এসেছি। দীর্ঘদিনের নেতা হিসেবে আমাদের একটা দায়িত্ব আছে। দেশ বাঁচাতে হবে। গণতন্ত্র বাঁচাতে হবে। সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলিকে বাঁচাতে হবে। সিবিআই, ইডি, আয়কর বিভাগ, আরবিআই বা ক্যাগ- প্রতিটি প্রতিষ্ঠানই বিপদের মুখে। নোট বাতিল একটা বড় ভুল। মুদ্রাস্ফীতি ও পেট্রোল ডিজেলের দাম লাগামছাড়া। দেশজুড়ে বাড়ছে অসহিষ্ণুতা। সংখ্যালঘুরা আশঙ্কিত। এমনকি রাজনীতিকদের সিবিআই দিয়ে ভয় দেখানো হচ্ছে। আমাদের দেশ বাঁচাতে হবে। প্রথম থেকেই বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরের অধিবেশনের আগে আমাদের এক হতে হবে। আলোচনার মাধ্যমেই তা সম্ভব''। ১৯ জানুয়ারি তৃণমূলের ব্রিগেড সমাবেশে হাজির থাকার আশ্বাসও দেন চন্দ্রবাবু। তাঁর কথায়, ''আমাকে আমন্ত্রণ করেছেন। জানুয়ারিতে ব্রিগেড সমাবেশে আসছি''। এর পাশাপাশি চন্দ্রবাবু স্পষ্ট করেন, সংসদের আসন্ন শীতকালীন অধিবেশনের আগে ডিসেম্বরেই বৈঠকে বসতে চলেছেন বিরোধী নেতানেত্রীরা। ওই বৈঠকেই ঠিক হবে আগামীর রূপরেখা''। 

চন্দ্রবাবুর সুরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,''দেশের স্বার্থে জোট নিয়ে আলোচনা হয়েছে। দেশের স্বার্থে আলোচনা করছি। অরবিন্দ কেজরিয়াল সমস্যায় পড়েছিলেন, তখন একসঙ্গে গিয়েছিলাম। একসঙ্গে কাজ করছি আমরা। বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে একজোট আমরা। দেশ বাঁচাতে হবে। ১৯ জানুয়ারিতে সবাই আসছেন। ডিসেম্বরে বিরোধী জোটের বৈঠক হবে। ভোটের প্রচারের ব্যস্ততা মেটার পর বৈঠক করে ভবিষ্যত কর্মপন্থা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে''।

এনডিএ ছাড়ার পর বিজেপি বিরোধী দলগুলিকে এক ছাতার তলায় আনার চেষ্টা চালাচ্ছেন অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। ইতিমধ্যেই দিল্লিতে গিয়ে রাহুল গান্ধীর সঙ্গে দেখা করে এসেছেন। বৈঠকের পর চন্দ্রবাবু নাইডু দাবি, গণতন্ত্র বাঁচাতেই বিরোধীদের জোট করতে হবে। চন্দ্রবাবুর সুরে রাহুল গান্ধীও জানিয়ে দেন, অতীত ভুলে এগোতে চান। দাক্ষিণাত্যে কর্ণাটকে গিয়ে এইচডি দেবগৌড়া ও তাঁর ছেলে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর সঙ্গেও দেখা করেন চন্দ্রবাবু।

আরও পড়ুন- এবার মুখ ফসকে নয় বিতর্ক নয়, মঞ্চে উঠে গাইলেন বিপ্লব দেব, দেখুন ভিডিও