গোয়েন্দা প্রধান অর্ণব ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইআর করতে বিধাননগর থানায় কুণাল

গোয়েন্দা প্রধান অর্ণব ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইএর করতে বিধাননগর দক্ষিণ থানায় গেলেন তৃণমূলের সাসপেন্ডেড সাংসদ কুণাল ঘোষ। কুণাল ঘোষের অভিযোগ সারদা কাণ্ড নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাঁকে গ্রেফতারের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন গোয়েন্দা প্রধান।

Updated By: Nov 23, 2013, 03:15 PM IST

গোয়েন্দা প্রধান অর্ণব ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইএর করতে বিধাননগর দক্ষিণ থানায় গেলেন তৃণমূলের সাসপেন্ডেড সাংসদ কুণাল ঘোষ। কুণাল ঘোষের অভিযোগ সারদা কাণ্ড নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাঁকে গ্রেফতারের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন গোয়েন্দা প্রধান।
সংবাদমাধ্যমের বাইরে আর কোথায় সারদার টাকা রয়েছে তা না জানালে তাঁকে গ্রেফতারের হুমকি দেওয়া হয় বলে দাবি কুণাল ঘোষের। সারদা কাণ্ডের সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে আজই প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন কুণাল ঘোষ।
গোয়েন্দা প্রধান অর্ণব ঘোষের বিরুদ্ধে এফআইএর করতে বিধাননগর দক্ষিণ থানায় গেলেন তৃণমূলের সাসপেন্ডেড সাংসদ কুণাল ঘোষ। কুণাল ঘোষের অভিযোগ সারদা কাণ্ড নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাঁকে গ্রেফতারের হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন গোয়েন্দা প্রধান।
সংবাদমাধ্যমের বাইরে আর কোথায় সারদার টাকা রয়েছে তা না জানালে তাঁকে গ্রেফতারের হুমকি দেওয়া হয় বলে দাবি কুণাল ঘোষের। সারদা কাণ্ডের সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়ে আজই প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন কুণাল ঘোষ।
বিধাননগর কমিশনারেটের পুলিস কমিশনার রাজীব কুমার শুক্রবার দেখা করেন মুখ্যমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে। তখন থেকেই কুণাল ঘোষের গ্রেফতারি নিয়ে জল্পনা চলছিল। এরপর শুক্রবার রাতের দিকে কুণাল ঘোষের অনুপস্থিতিতে তাঁর খোঁজে তাঁর বাড়িতে যায় পুলিস। কুণালবাবুর বক্তব্য, এই খবর পেয়েই তিনি বাড়ি ফিরে আসেন। তবে গোটা ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করে তৃণমূল সাংসদের প্রশ্ন, তাঁকে যখনই ডাকা হয়েছে তিনি পুলিসের কাছে উপস্থিত হয়েছেন। এর আগে দশবার বিধাননগর কমিশনারেটে তিনি গিয়েছেন। এবং আজ বেলা ২টো নাগাদ তিনি আবারও যাবেন। তাই তাঁর প্রশ্ন, তিনি যখন তদন্তের ব্যাপারে সাহায্য করছেনই, তখন এই ভাবে তাঁর বাড়িতে পুলিসের যাওয়ার কী দরকার ছিল।
এর আগে রাজ্যসরকার তথা শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেন কুণাল। সারদাকাণ্ডে আগে থেকেই সব জানতেন মুখ্যমন্ত্রী, তবু ব্যবস্থা নেননি। সারদাকাণ্ডের জন্য তাঁকে যদি গ্রেফতার করা হয়, তা হলে তিনি পুলিসের কাছে নয় ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দিতে চান। এ ব্যাপারে আইনজীবীদের সঙ্গে তিনি কথাও বলছেন। শুক্রবার রাতে এ কথা জানালেন কুণাল ঘোষ।