উত্তাল যাদবপুর: অবশেষে সহউপচার্য ও রেজিস্টারকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে দিতে সম্মত হল পড়ুয়ারা

বহু টালবাহানার পর সহউপাচার্য ও রেজিস্টারকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকটে দিল ছাত্র-ছাত্রীরা।

Updated By: Sep 19, 2014, 04:18 PM IST
উত্তাল যাদবপুর: অবশেষে সহউপচার্য ও রেজিস্টারকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে দিতে সম্মত হল পড়ুয়ারা

বিকেল ৪টে: বহু টালবাহানার পর সহউপাচার্য ও রেজিস্টারকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকটে দিল ছাত্র-ছাত্রীরা।

১১টা: ফের উত্তাল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর. বিক্ষোভ প্রদর্শন ছাত্র-ছাত্রীদের . প্রশাসনিক ভবনের সামনে ছাত্র-ছাত্রীদের বিক্ষোভ। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারকে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়।

১০টা ৫০: অরবিন্দ ভবনের সমনে জড়ো হন ছাত্র-ছাত্রীরা।  পথ আটকে দেওয়া হয় রেজিস্টারের। অরবিন্দ ভবনের বাইরে রেজিস্টারের সঙ্গে বচসা বিক্ষুপ্ত-ছাত্রীদের। উপাচার্য - রেজিস্ট্রারের পদত্যাগের দাবি। বাধা দেওয়া হয়েছে সহ উপাচার্যকেও।

১০ টা ৪৫: অন্যদিকে আজ দিনভরই যাদবপুরকাণ্ডে উত্তাল হওয়ার সম্ভাবনা শহরে। আজ দুপুর ৩টেয় লালবাজার অভিযান করবে প্রসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা। ঘটনার দিন রাতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছিলেন তাঁরা। বহিরাগত নয়। এমটাই দাবি প্রেসিডেন্সি ছাত্র-ছাত্রীদের।

৯টা ৪৫: বিকেলে সাংবাদিক বৈঠক করবে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা। রাতে আলো নিভিয়ে পুলিসের লাঠিচার্জের ঘটনায় পুলিস কমিশনারের মন্তব্যের জাবাব দিতেই সাংবাদিক বৈঠক করবে বিক্ষোভকারীরা। বৈঠকে কমিশনার কিংবা তাঁর প্রতিনিধিকে উপস্থিত থাকার আহ্বান।

৯টা ৩০: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আন্দোলন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ঠ করছে। এই মর্মে কলকাতা হাইকোর্টের মামলা করলেন অধ্যাপক বিমল শংকর নন্দ।