ছাত্র বিক্ষোভে উত্তাল যাদবপুর, শান্তিপূর্ণ অবস্থান 'সামলাতে' উপাচার্যের আহ্বানে বিশ্ববিদ্যালয় ঘিরল পুলিস

ঘেরাও  তুলতে  ক্যাম্পাসে পুলিস ডাকলেন  যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অভিজিত্ চক্রবর্তী। আজ বিকেল থেকে  ছাত্র বিক্ষোভ ঘিরে অশান্ত হয়ে ওঠে  যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।  বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল সদস্যদের ঘেরাও করে রাখে ছাত্রছাত্রীরা । ঘেরাও করা হয় ছাত্রী নিগ্রহের তদন্তের দায়িত্বে থাকা কমিটির সদস্যরাও। রাতের দিতে পরিস্থিতি সামাল দিতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভিতরে ও বাইরে মোতায়েন করা হয় বিরাট পুলিস বাহিনী।  ঘটনা স্থলে রয়েছেন  জটেন্ট সিপি ওয়ান এবং  ডিসি ইএসডি।  

Updated By: Sep 16, 2014, 11:33 PM IST
ছাত্র বিক্ষোভে উত্তাল যাদবপুর, শান্তিপূর্ণ অবস্থান 'সামলাতে' উপাচার্যের আহ্বানে বিশ্ববিদ্যালয় ঘিরল পুলিস

কলকাতা: ঘেরাও  তুলতে  ক্যাম্পাসে পুলিস ডাকলেন  যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অভিজিত্ চক্রবর্তী। আজ বিকেল থেকে  ছাত্র বিক্ষোভ ঘিরে অশান্ত হয়ে ওঠে  যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়।  বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল সদস্যদের ঘেরাও করে রাখে ছাত্রছাত্রীরা । ঘেরাও করা হয় ছাত্রী নিগ্রহের তদন্তের দায়িত্বে থাকা কমিটির সদস্যরাও। রাতের দিতে পরিস্থিতি সামাল দিতে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের ভিতরে ও বাইরে মোতায়েন করা হয় বিরাট পুলিস বাহিনী।  ঘটনা স্থলে রয়েছেন  জটেন্ট সিপি ওয়ান এবং  ডিসি ইএসডি।  

উপাচার্য জানিয়েছেন, ছাত্রদের আন্দোলনে যুক্ত বহিরাগতরাও। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থেই পুলিস ডেকেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ছাত্রী নিগ্রহের ঘটনার তদন্তে অসন্তুষ্ট ছাত্রছাত্রীরা  ছাত্রছাত্রীদের দাবি, তদন্ত কমিটিতে এক জন অবসরপ্রাপ্ত বিচারক ও একজন বিশেষজ্ঞকে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। এরই মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীদের একাংশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায় ছাত্রছাত্রীদের। কর্মচারীদের অভিযোগ,কোনও ঘটনায় যুক্ত না থাকলেও দীর্ঘক্ষণ তাঁদের আটকে রাখা হয়। বার বার বলা সত্ত্বেও  তাঁদের ছেড়ে দেওয়ার আর্জি শোনা হয়নি বলে অভিযোগ।  ছাত্রছাত্রীদের পাল্টা অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরা ধাক্কা দিয়ে, তাঁদের মাড়িয়ে চলে যান। তাঁদের দাবি, বিক্ষোভ ঠেকাতে বহিরাগতদের ঢোকানো হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে।