টাকা দিন, না হলে দিওয়ালি দেখতে পাবেন না! এক সঙ্গে ২৮ জন বিধায়কের কাছে হুমকির বার্তা

বিধায়কদের কাছে আসা হোয়াটসঅ্যাপের মেসেজটা ঠিক এমন- আপনাকে খুন করার সুপারি নিয়েছি। যদি বেঁচে থাকতে চান, তা হলে ৬০ লক্ষ টাকা নীচের ঠিকানায় পাঠাতে হবে। টাকা না দিলে ফল ভাল হবে না

Updated By: Oct 29, 2018, 03:28 PM IST
টাকা দিন, না হলে দিওয়ালি দেখতে পাবেন না! এক সঙ্গে ২৮ জন বিধায়কের কাছে হুমকির বার্তা
অভিযুক্ত ইউসুফ হুসেন মহম্মদ।

নিজস্ব প্রতিবেদন: ৬০ লক্ষ টাকা না দিলে এ বারের দিওয়ালি দেখতে পাবেন না। এক সঙ্গে ২৮ জন বিধায়কের মোবাইলে এমনই হুমকির মেসেজ এল। যা দেখে ত্রাহি ত্রাহি রব রাজস্থানে। একেই ভোট নিয়ে তুমুল ব্যস্ততা। তার উপর এই মেসেজ! অনেকেই হাল্কা চালে নিলেন বিষয়টিকে। তাঁরা বিদ্রুপ করে বলেন, এটা হয়তো বিরোধীদের ষড়যন্ত্র। ভোটের সময় বেকায়দায় ফেলতেই এমন বিভ্রান্তিমূলক বার্তা। কিন্তু পুলিস তদন্তে নামলেই বোঝা যায়, বিরোধী-টিরোধীদের কোনও চাল নয়, খাস-হুমকিস্থল থেকেই এই বার্তা এসেছে।

কিন্তু কার এমন সাহস, যিনি বিধায়কদেরই চমকালেন?

বিধায়কদের কাছে আসা হোয়াটসঅ্যাপের মেসেজটা ঠিক এমন- আপনাকে খুন করার সুপারি নিয়েছি। যদি বেঁচে থাকতে চান, তা হলে ৬০ লক্ষ টাকা নীচের ঠিকানায় পাঠাতে হবে। টাকা না দিলে ফল ভাল হবে না। আর চালাকি করলে ভোট বা দিওয়ালি কোনওটাই দেখতে পাবেন না। এই মেসেজের নীচে ঠিকানা লেখা থাকে- সিদ্দি সুইটস (কুরেশি হোটেলের কাছে)। দরগা বাজারে রুবি শেখ নামে এক মহিলাকে ওই টাকা দিতে হবে। এর পর পুলিস তদন্তে নামলে মহারাষ্ট্রের নাসিক থেকে ইউসুফ হুসেন মহম্মদ নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁর মোবাইল থেকে পাওয়া যায় ২৮ জন বিধায়ককে পাঠানো সেই হুমকির মেসেজ। ইউসুফকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। জানা গিয়েছে, আজমেরের দরগা বাজারের একটি হোটেলের কর্মচারি ইউসুফ।

আরও পড়ুন- মায়ের পাশে ঘুমিয়ে ছিল মেয়ে, তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করল দুষ্কৃতীরা

এখনও পর্যন্ত রাজস্থানের একমাত্র বিধায়ক তরুণ রাই কাকা থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন। তদন্তের খাতিরে সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখে কুলুপ এঁটেছে পুলিস। তবে, জানা যাচ্ছে ইউসুফকে গ্রেফতার করা হলেও, এর পিছনে বড়সড় ষড়যন্ত্র রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখছে পুলিস।