বিধায়কের লোকজন থানায় এসে দাবি করল লক-আপের চাবি

ইভ-টিজারকে 'দলের লোক' বলে তাকে ছাড়তে হবে এই দাবি নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বচসা

Updated By: Oct 18, 2020, 02:25 PM IST
বিধায়কের লোকজন থানায় এসে দাবি করল লক-আপের চাবি

নিজস্ব প্রতিবেদন: ফের অসামাজিক কাণ্ডে নাম জড়াল বিজেপি নেতার। লখিমপুর খেরির বিজেপি বিধায়ক অস্বস্তিতে ফেললেন দলকে। 

ইতিমধ্যেই খুনের মামলায় নাম জড়িয়েছেন আর এক বিজেপি নেতা ধীরেন্দ্র সিং। তিনি গ্রেফতারও হয়েছেন। এর পরে আবার এই ঘটনা।

একজন ইভ-টিজারকে নিয়ে ঝঞ্ঝাট। ওই ইভ-টিজারকে পুলিশি হেফাজত থেকে জোর করে বের করে আনার জন্য সংশ্লিষ্ট বিজেপি নেতা ও তার সাঙ্গপাঙ্গোরা ঝামেলা বাধালেন পুলিশ স্টেশনে গিয়ে। 

বিষয়টি আরও তাৎপর্যপূর্ণ এ জন্যও যে, মেয়েদের মর্যাদা রক্ষার কথা মাথায় রেখে কয়েক ঘণ্টা আগেই 'মিশন শক্তি' নামের একটি প্রকল্প রাজ্য সরকার ঘোষণা করেছে। যে প্রকল্পের মূল কথাই হল, মেয়েদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারকারীদের কোনও ছাড় নয়। আর সেই মাহেন্দ্রক্ষণেই এক বিজেপি নেতা সেই প্রকল্পের বিপরীতমুখী একটি কাজে নিজের নাম জড়িয়ে ফেললেন। 

ঘটনার একটি ভিডিয়ো ক্লিপ সোশ্যাল মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে ওই বিজেপি বিধায়ক তার ছেলে এবং সমর্থকদের দেখা গিয়েছে। 

বিজেপি বিধায়ক লোকেন্দ্রপ্রতাপ সিং এবং তাঁর ছেলে রাতে লখিমপুরে মহম্মদি পুলিস স্টেশনে পৌঁছন। এবং উক্ত ইভ-টিজারকে 'দলের লোক' বলে তাকে ছাড়তে হবে এই দাবি নিয়ে পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। ভিডিয়োটিতে শোনা যায়, বিধায়ক ও তাঁর সঙ্গের লোকজন পুলিশের কাছে লক-আপের চাবি পর্যন্ত চাইছেন!

তবে লোকেন্দ্রপ্রতাপ ঘটনার কথা স্বীকার করেননি। এবং তাঁর ভাবমূর্তি খারাপ করার ইচ্ছায় এটা রটানো হয়েছে বলে দাবি করেন।

আরও পড়ুন: বালিয়া-কাণ্ডে গ্রেফতার বিজেপি নেতা ধীরেন্দ্র সিং