বেকারদের চাকরি, নইলে ভাতা, রাজস্থানে নির্বাচনী ইস্তেহারে প্রতিশ্রুতি বসুন্ধরার

এবারের ইস্তেহারে আগামী ৫ বছরে রাজ্যে কর্মসংস্থার বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি। জানানো হয়েছে, আগামী ৫ বছরে বেসরকারি ক্ষেত্রে ৫০ লক্ষ কর্মসংস্থানের লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে। সরকারি চাকরিতে ৩০,০০০ যুবক যুবতীকে নিয়োগ করা হবে। 

Updated By: Nov 27, 2018, 04:11 PM IST
বেকারদের চাকরি, নইলে ভাতা, রাজস্থানে নির্বাচনী ইস্তেহারে প্রতিশ্রুতি বসুন্ধরার

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভোটগ্রহণের ঠিক ১০দিন আগে রাজস্থানে নির্বাচনী ইস্তেহার প্রকাশ করল ভারতীয় জনতা পার্টি। 'গৌরব সংকল্প পত্র - ২০১৮' নামে এই ইস্তেহার প্রকাশ করে সেরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়া দাবি করেছেন, গত বারের ইস্তেহারের ৯৫ শতাংশ প্রতিশ্রুতি পালন করেছে তাক সরকার। এদিনের অনুষ্ঠানে রাজে ছাড়াও হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুনরাম মেঘওয়াল ও প্রকাশ জাভড়েকর।

এবারের ইস্তেহারে আগামী ৫ বছরে রাজ্যে কর্মসংস্থার বৃদ্ধির প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বিজেপি। জানানো হয়েছে, আগামী ৫ বছরে বেসরকারি ক্ষেত্রে ৫০ লক্ষ কর্মসংস্থানের লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে। সরকারি চাকরিতে ৩০,০০০ যুবক যুবতীকে নিয়োগ করা হবে। এছাড়া মাসে ৫,০০০ টাকা করে বেকারভাতা দেবে সরকার। 

 

এদিন বসুন্ধরা রাজে দাবি করেন, গত বছরের ইস্তেহারে দেওয়া ৬৬৫টি প্রতিশ্রুতির মধ্যে ৬৩০টি পালন করতে পেরেছে তার সরকার। শতাংশের নিরিখে যা ৯৫ শতাংশ। 

‘সংযম অভ্যাস করুন’, মোদীর বিরুদ্ধে মুখ খুললেন মনমোহন

গত ৫ বছরে তার সরকারের কাজের হিসাব তুলে ধরে বসুন্ধরা রাজে বলেন, ৫ বছরে ৭টি মেডিক্যাল কলেজ তৈরি করেছে তার সরকার। কৃষকদের ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিমা করানো হয়েছে। ৩৫ লক্ষ মানুষকে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা দিয়েছে তার সরকার। মহিলাদের জন্যও একাধিক প্রকল্প কার্যকর করেছে তার সরকার। 

এছাড়া পড়াশুনো চালিয়ে যাওয়ার জন্য ছাত্রছাত্রীদের ৫৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বসুন্ধরা। গরিব মানুষের চিকিত্সা ও অস্ত্রোপচারের জন্য বিশেষ কার্ডের ব্যবস্থা করেছে তাঁর সরকার। 

 

আগামী ৭ ডিসেম্বর ২০০ আসনের রাজস্থান বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। বর্তমানে সেরাজ্যে রয়েছে বিজেপির সরকার। ৫ বছর পর প্রতিষ্ঠান বিরোধিতা পেরিয়ে ফের তারা ক্ষমতায় ফিরতে পারে কি না সেদিকে নজর রয়েছে সবার।